advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘এটি সম্পূর্ণরূপে স্টেট টেররিজম’

নিজস্ব প্রতিবেদক
২ জুন ২০২০ ১৭:১৭ | আপডেট: ২ জুন ২০২০ ২০:২৬
পুরোনো ছবি
advertisement

রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদারকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাংককে চলে যাওয়ার সুযোগ করে দেওয়াকে ‘সম্পূর্ণভাবে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস’ হিসেবে দেখছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।  

আজ মঙ্গলবার দুপুরে এক ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে কথা বলেন বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা।

গত ২৫ মে সকাল ৯টা ১১ মিনিটে আরঅ্যান্ডআর এভিয়েশন লিমিটেডের মালিকানাধীন একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে দেশ ছাড়েন ওই দুজন। এটি সরকার অনুমোদিত একটি মেডিকেল ইভাকুয়েশন ফ্লাইট ছিল বলে জানান শাহজালাল বিমানবন্দরের পরিচালক এএইচএম তৌহিদ উল আহসান।

এ বিষয়ে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘সন্ত্রাসী কায়দায় ব্যাংক লুটপাটকারীদের পালাতে সুযোগ করে দিয়েছে সরকার। এটি সম্পূর্ণরূপে স্টেট টেররিজম। দুজন অপরাধীকে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় দেশ ছাড়ার সুযোগ করে দিয়েছে ক্ষমতাসীনরা। অতীতেও এই সরকার ব্যাংক লুটপাটকারীদের নানাভাবে সহযোগিতা দিয়ে নিরাপদ করেছিল, এই ঘটনা তার আরেকটি উৎকৃষ্ট প্রমাণ।’

ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পত্তির মূল্য বেশি দেখাতে রাজি না হওয়ায় এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মোহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে গুলি করে হত্যার হুমকির মামলার আসামি রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদার।

সিকদার পরিবারের এ দুই সদস্যের বিরুদ্ধে এক্সিম ব্যাংকের এমডি ও অতিরিক্ত এমডিকে অপহরণ করে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে গত ১৯ মে রাজধানীর গুলশান থানায় একটি মামলা হয়। এক্সিম ব্যাংকের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব) সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে এ মামলা করেন। এর ৬ দিন পর অসুস্থতার কথা বলে সিকদার গ্রুপের মালিকানাধীন একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ব্যাংককে পাড়ি জমান অভিযুক্ত দুভাই। গত ২৫ মে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে আরঅ্যান্ডআর এভিয়েশন লিমিটেডের একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাংককের উদ্দেশে পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রের পাসপোর্টধারী রন ও দিপু সিকদার। তারা দুজনই আরঅ্যান্ডআর এভিয়েশনের পরিচালক।

advertisement