advertisement
advertisement

শনাক্ত দুই লাখের বেশি
ভারত এখনো ‘পিক’ থেকে অনেক দূরে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৪ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৪ জুন ২০২০ ০১:১২
advertisement

ভারতে করোনা সংক্রমণের বিস্তার দিন দিন বাড়ছে। গতকাল সর্বমোট সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়েছে। বুধবার দেশটিতে ৮ হাজার ৯০৯ জন নতুন করে সংক্রামিত হওয়ায় সর্বমোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৭ হাজার ৬১৫ জনে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর রয়টার্স।

শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় বিবেচনায় বিশ্বে ভারত এখন সপ্তম স্থানে। শীর্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্র, দ্বিতীয় স্থানে

ব্রাজিল ও তৃতীয় স্থানে রাশিয়া। এর পর যুক্তরাজ্য, স্পেন ও ইতালির পরই আছে ভারত। তবে এটাকেই ভারতে সংক্রমণ পরিস্থিতির সর্বোচ্চ পর্যায় বা ‘পিক’ বলে মনে করছেন না ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের ড. নিবেদিতা গুপ্তা। সংবাদমাধ্যম রয়টার্সকে তিনি বলেন, আমরা পিক থেকে এখনো অনেক দূরে আছি। এর আগে ভারতের স্বাস্থ্য কমকর্তারা জানিয়েছিলেন, জুনের শেষ দিকে অথবা জুলাইয়ে ভারত ‘পিকে’ পৌঁছতে পারে। অর্থাৎ দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ওই সময়ই সবচেয়ে বেশি থাকবে, তার পর ধীরে ধীরে কমতে শুরু করবে।

এদিকে আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতে নতুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ লাখে পৌঁছতে লেগেছিল ১১০ দিন। কিন্তু ১ লাখ থেকে ২ লাখে পৌঁছতে লেগেছে মাত্র ১৫ দিন।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভারতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৮১৫ জনের। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৪৬৫ জনেরÑ যেখানে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি, ৭২ হাজার ৩০০ জন। এ ছাড়া গুজরাটে ১ হাজার ৯২ জন, রাজধানী দিল্লিতে ৫৫৬ জন এবং পশ্চিমবঙ্গে ৩৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

advertisement