advertisement
advertisement

৭ উন্নয়ন সহযোগীর কাছ থেকে সহায়তা পাচ্ছে বাংলাদেশ

আবু আলী
৪ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৪ জুন ২০২০ ০১:৪৬
advertisement

করেনা ভাইরাস মোকাবিলায় আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরে বিশে^র সাতটি উন্নয়ন সহযোগীর কাছ থেকে ২০৩ কোটি মার্কিন ডলার (১৭ হাজার ২৫৫ কোটি টাকা) সহায়তা পাচ্ছে বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে তাদের কাছ থেকে সহায়তার প্রতিশ্রুতিও মিলেছে। এর মধ্যে এডিবির কাছে ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা, বিশ্বব্যাংকের কাছে ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা, এআইআইবির কাছে ২ হাজার ১২৩৫ কোটি টাকা, জাপানের কাছে ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা, ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাছে ৮৫০ কোটি টাকা, এএফডির কাছে ১ হাজার ২৭৫ কোটি টাকা এবং জার্মানির কাছ থেকে ২৫৫ কোটি টাকার সহায়তা পাচ্ছে বাংলাদেশ। খবর অর্থ বিভাগ সূত্রের।

সূত্র জানিয়েছে, উন্নয়ন সহযোগীদের প্রতিশ্রুত অর্থ দ্রুত পাওয়ার কৌশল হিসেবে তাদের কাছে বাজেট সহায়তা চাওয়া হয়েছে। এ টাকা দিয়ে মূলত স্বাস্থ্য খাত, কর্মসৃজন এবং অর্থনেতিক পুনরুদ্ধারে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনার প্যাকেজ বাস্তবায়ন করা হবে। বাজেট সহায়তা ছাড়াও প্রকল্পের সহায়তার জন্য সব উন্নয়ন সহযোগীকে অনুরোধ করেছে অর্থ বিভাগ।

জানা গেছে, ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকার ঋণ অনুমোদন করায় এডিবিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এই ক্রান্তিকালীন সময়ে এডিবির তৎক্ষণিক সহায়তা বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত জরুরি ছিল। এর আগে করোনা

ভাইরাসে অর্থনীতিতে উ™ভূত নেতিবাচক প্রভাবের ঝুঁকি কমাতে সদস্য দেশগুলোর জন্য এশীয় অবকাঠামো বিনিয়োগ ব্যাংক (এআইআইবি) ১ হাজার কোটি ডলারের তহবিল গঠন করে। সেখান থেকে সহায়তা এবং স্বাস্থ্য খাতের জরুরি সেবা ও বাজেটের জন্য এআইআইবি বাংলদেশের জন্য যে ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আর্থিক সহায়তার প্রতিশ্রুতি দেয়।

জানা গেছে, এআইআইবির সহায়তার টাকায় কৃষি খাতের অটোমেশন, কৃষিজাত দ্রব্যের প্রক্রিয়াকরণ, ফল ও শাকসবজি প্রক্রিয়াকরণ, কোল্ড স্টোরেজ, চামড়া প্রক্রিয়াকরণ, গবাদিপশু ও হাসমুরগি পালন এবং মাছ চাষের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে।

advertisement