advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

শ্রীমঙ্গলে চা নিলাম শুরু

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
৪ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৪ জুন ২০২০ ০১:৪৬
advertisement

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্রে চলতি মৌসুমের প্রথম নিলাম গতকাল সম্পন্ন হয়েছে। নিলামে দেশের নানা প্রান্ত থেকে ক্রেতা ও বিক্রয় প্রতিনিধিরা অংশ নেন। প্রথম দিনে ১৮ হাজার ৭০০ কেজি চা বিক্রি হয়েছে, যার বাজারমূল্য প্রায় অর্ধকোটি টাকা। ক্রেতাদের চাহিদা ও বাজার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে এ বছর করোনা ভাইরাসের কারণে কিছুটা বিলম্বে শ্রীমঙ্গলে চা নিলাম প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

টি ট্রেডার্স অ্যান্ড প্ল্যান্টারস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত চা নিলামে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অর্ধশতাধিক বায়ার ও ২টি ব্রোকার হাউস অংশ নেয়। নিলামে কেজিপ্রতি চায়ের সর্বোচ্চ দাম ওঠে ২৩০

টাকা। এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় চা উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে, যার ফলে প্রতি নিলামে চা পাতা উত্তোলন ও বিক্রি বৃদ্ধি হওয়ার আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

দেশের ১৬৭টি চা বাগানের মধ্যে শুধু মৌলভীবাজারেই রয়েছে ৯২টি। এ অঞ্চলের উৎপাদিত চা দুবছর আগেও চট্টগ্রামের নিলাম কেন্দ্রে নিয়ে বিক্রি করতে হতো। ২০১৭ সালের ৮ ডিসেম্বর শ্রীমঙ্গলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্র উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ২০১৮ সালে আনুষ্ঠানিক নিলাম কার্যক্রম শুরু হয়েছিল।

চা-শিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা জানান, এ বছর চায়ের উৎপাদন বৃদ্ধির ফলে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানির সুযোগ বেড়েছে। এই মৌসুমে প্রতি সোমবার চট্টগ্রামে চা নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া মাসের প্রথম ও তৃতীয় সপ্তাহের বুধবার শ্রীমঙ্গলে চা নিলাম হওয়ার কথা রয়েছে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রামে মৌসুমের দুটি নিলাম সম্পন্ন হয়েছে। এ বছর চট্টগ্রামে ৪২টি ও শ্রীমঙ্গলে ২০টি চা নিলাম অনুষ্ঠিত হবে।

করোনা ভাইরাসের বন্ধের মধ্যেও দেশের বিভিন্ন বাগানে চা উৎপাদন চালু রয়েছে। অন্যদিকে পরিমিত বৃষ্টি ও আর্দ্রতা অনুকূলে থাকায় মৌলভীবাজারে চা উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। এ বছর লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

advertisement