advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রিয়ালের ফুটবলার জেলঝুঁকিতে

ক্রীড়া ডেস্ক
৬ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৫ জুন ২০২০ ২২:৩০
advertisement

করোনা ভাইরাস লকডাউন না মানায় আটক হয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ বি টিমের ফরওয়ার্ড সার্জিও দিয়াজ। দোষী প্রমাণিত হলে জেলও হতে পারে প্যারাগুয়ের এই ফুটবলারের।

লকডাউনের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব না মেনে সতীর্থ ফুটবলার সেবাস্তিান ফেরেইরার বাড়িতে ভলিবল খেলছিলেন দিয়াজ। প্রতিবেশীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ হানা দিয়ে গ্রেপ্তার করে তাদের। অভিযোগ প্রমাণিত হলে জেলেও যেতে পারেন এই খেলোয়াড়।

২২ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার ২০১৬ সালে নিজ দেশের ক্লাব চেরো পোর্তেনিও থেকে নাম লেখান রিয়াল মাদ্রিদের যুবদলে। যে প্রতিভা দেখিয়ে মুগ্ধ করেছিলেন রিয়ালকে, রিয়ালে আসার পর সে প্রতিভা দেখাতে পেরেছেন সামান্যই। ফলে প্রতিবছর ধারে অন্যান্য ক্লাবে খেলতে হয়েছে। গত তিন বছর ধরে ধারে খেলছেন স্প্যানিশ ক্লাব লুগো, ব্রাজিলের ক্লাব করিন্থিয়ানস ও সাবেক ক্লাব চেরো পোর্তেনিওতে। লকডাউনের কারণে খেলাধুলা সব বন্ধ, দিয়াজও আটকা পড়ে আছেন প্যারাগুয়েতেই। সেখানেই বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে ভলিবল খেলতে গিয়ে নিজের জন্য ডেকে আনলেন বিপত্তি।

সতীর্থ সেবাস্তিয়ান ফেরেইরার বাড়িতে সেদিন অভিযান চালায় পুলিশ। অন্য সবার সঙ্গে আটক হন দিয়াজও। পুলিশের কাছে অভিযোগ এসেছে, গত মার্চ থেকেই ফেরেইরার বাসায় নিয়মিত পার্টি হচ্ছে। হচ্ছে খেলাধুলা। পুলিশ প্রসিকিউটর লরা রোমেরো জানিয়েছেন, ‘অভিযোগের সপক্ষে কিছু তথ্যপ্রমাণ পেয়েছি আমরা। যেমন ভলিবল নেট, বল, একগাদা বিয়ারের বোতল। আমরা নিশ্চিত করতে পারি কয়েক ডজন বিয়ারের বোতল ছিল। ছিল কিছু ক্রীড়াসামগ্রী ও জুতা। গোটা মাঠেই ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল এগুলো।’ ২০১৭ সালে প্যারাগুয়ের মূল দলে অভিষেক হয়েছে দিয়াজের। খেলেছেন একটি ম্যাচ।

advertisement