advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে নিবন্ধ প্রত্যাহার ল্যানসেটের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৬ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুন ২০২০ ০০:০০
advertisement

করোনার রোগীদের উপশমে ব্যবহৃত ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে একটি বিশেষ নিবন্ধ প্রত্যাহার করে নিয়েছে খ্যাতনামা মেডিক্যাল জার্নাল ল্যানসেট। ওই নিবন্ধের ওপর ভিত্তি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ওষুধটির প্রয়োগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল; তবে সেই নিষেধাজ্ঞাও প্রত্যাহার করেছে ডব্লিউএইচও। খবর রয়টার্স।

ছয়টি মহাদেশের ৯৬ হাজার রোগীর তথ্য বিশ্লেষণের দাবি করে গত মাসে ল্যানসেটে প্রকাশিত ওই নিবন্ধে দাবি করা হয়েছিল যে, করোনার চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহার নিয়ে সতর্ক হওয়া দরকার। সেখানে বেশ কিছু

আশঙ্কার কথা বলা হয়েছিল। তবে নিবন্ধের লেখকরা তথ্যের উৎস এবং তা সংগ্রহের সঙ্গে সরাসরি সংশ্লিষ্ট ছিলেন না জানানোর পর তাদের অনুরোধেই নিবন্ধটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে বলে জানায় ল্যানসেট।

নিবন্ধের লেখকরা এখন বলছেন, সার্জিস্ফিয়ার স্বতন্ত্র পর্যালোচনার জন্য সব রোগীর পূর্ণাঙ্গ তথ্য তাদের সরবরাহ করেনি। সে কারণে ‘তথ্যের প্রাথমিক উৎসের সত্যতা সম্পর্কে’ তারা নিশ্চিত হতে পারছেন না।

এদিকে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রায় অখ্যাত একটি প্রতিষ্ঠানের দেওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে আস্ত একটি গবেষণা প্রতিবেদন ছাপিয়ে ফেলার পর ল্যানসেটের মতো বিশ্বখ্যাত জার্নালগুলোয় ছাপা হওয়া গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা বা নিবন্ধগুলো ঠিকমতো যাচাই-বাছাই হয় কিনা, তা নিয়েও সন্দেহ বাড়ছে।

ল্যানসেটের ওই প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা গত বুধবার জানিয়েছে, করোনা চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের পরীক্ষামূলক ব্যবহারে কোনো বাধা নেই। সংস্থাটির নিজস্ব গবেষকরা অনুসন্ধান করে দেখেছেন, এই ওষুধের প্রয়োগে মারাত্মক কোনো জটিলতার প্রমাণ নেই।

প্রসঙ্গত, করোনা মহামারীর শুরুর দিকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ম্যালেরিয়ার এই ওষুধটি বেশ গ্রহণযোগ্যতা পায়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এটিকে ‘গেম চেঞ্জার’ হিসেবে অবিহিত করেছেন। এমনকি তিনি নিজেও এটি সেবন করছেন বলে এক সময় সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন।

advertisement