advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সন্তানের আকুতি
বাবার জন্য প্রয়োজন ছিল একটু অক্সিজেন

নুরুল হক শিপু সিলেট
৬ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুন ২০২০ ০২:১৯
প্রতীকী ছবি
advertisement

সিলেটে এ পর্যন্ত চিকিৎসা না পেয়ে ৩ করোনা রোগী মারা গেছেন। তবে শুক্রবার ভোরে একটি ঘটনা সিলেটের মানুষের বিবেককে নাড়িয়ে দিয়েছে। সিলেট নগরীর কুমারপাড়ার বাসিন্দা, বন্দর বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন খোকা ৪টি হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে মারা গেছেন।

পারিবারিক সূত্র জানায়, শুক্রবার ভোরে ইকবালেল হৃদযন্ত্রণা শুরু হলে চিকিৎসার জন্য ৩টি হাসপাতাল ঘুরে সর্বশেষ সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল; কিন্তু পথে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

খোকার ছেলে তিহাম বলেন, ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে বাবার বুকে প্রচ- ব্যথা শুরু হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে নগরীর সুবহানীঘাট এলাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তৃপক্ষ চিকিৎসা দিতে রাজি হয়নি। পরে দক্ষিণ সুরমার নর্থ ইস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে যাওয়া হয়। সেখানে সিট খালি নেই বলে শামসুদ্দিন

হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলা হয়। শামসুদ্দিনে নিয়ে গেলেও কলাপসিবলগেট তালা দেওয়া অবস্থায় ২০ মিনিট সময় দাঁড়ানোর পর পাহারাদার এসে ‘সবাই ঘুমিয়ে আছে’ বলে জানান। পরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বাবাকে আসিসিইউতে নিয়ে যেতে বলা হয়। সেখানে যাওয়ার পর ভেতরে প্রবেশ করতে না দিয়ে ফের নিচে পাঠানো হয়। নিচে আসার পর ডাক্তার বাবাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিহাম আরও বলেন, উপস্থিত সময়ে আমার বাবার অক্সিজেনটা খুব জরুরি ছিল; কিন্তু কোনো হাসপাতাল তা দিল না। আমার টাকার কোনো সমস্যা ছিল না। কেবল আমার বাবার জন্য অক্সিজেনটাই প্রয়োজন ছিল; কিন্তু তা পেলাম না। তাই আমি বলব, আমার বাবার মতো মৃত্যু আর কোনো বাবার যেন না হয়।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল জানান, সিলেটে এখন পর্যন্ত তিন রোগী বিনাচিকিৎসায় মারা গেছেন, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। তিনি বলেন, আমি বিষয়টি নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন ও মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সঙ্গে কথা বলেছি। সিলেটে যাতে আর কোনো রোগী বিনাচিকিৎসায় মারা না যান, সে ব্যবস্থা করা হবে।

এ ব্যাপারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন আমাদের সময়কে বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ বিভিন্ন উচ্চপর্যায়ের ব্যক্তির সঙ্গে এ ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। সিলেটে যেসব হাসপাতাল রোগীকে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছে না; অবহেলা করছে, যাদের কারণে রোগী মারা যাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, সিলেটে যাতে আর কেউ বিনাচিকিৎসায় মারা না যান, সেই ব্যবস্থা করা হবে।

advertisement