advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা ও স্ত্রী-কন্যাকে কুপিয়ে হত্যা

পাবনা প্রতিনিধি
৬ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুন ২০২০ ০০:০০
advertisement

পাবনায় অবসরপ্রাপ্ত এক ব্যাংক কর্মকর্তা এবং তার স্ত্রী-কন্যাকে কুপিয়ে এবং শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বেলা ৩টার দিকে শহরের দক্ষিণ রাঘবপুরের একটি বাড়ির দরজা ভেঙে তিনজনের অর্ধগলিত মৃতদেহ উদ্ধার করে। নিহতরা হলেন রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল জব্বার (৬৫), তার স্ত্রী ছুম্মা খাতুন (৫৫) ও মেয়ে সানজিদা খাতুন (১২)।

পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, কী কারণে এবং কারা এ হত্যাকা- ঘটিয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে উদঘাটন করা যাচ্ছে না। পুলিশ তদন্তে মাঠে নেমেছে। এ ছাড়া রাজশাহী থেকে পুলিশের বিশেষ টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও সুরতহাল দেখতে রওনা হয়েছে। আলামত যাতে নষ্ট না হয়, সে জন্য রাজশাহী থেকে টিম না আসা পর্যন্ত মরদেহ ওই বাড়িতেই থাকবে। পুলিশ বাড়িটি পাহারা দিচ্ছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দক্ষিণ রাঘবপুরের ৪ ইউনিটের একটি দোতলা বাড়ির নিচতলার একটি ইউনিটে সপরিবারে ভাড়া থাকতেন আবদুল জব্বার। বাড়িটির দোতলা এবং নিচতলার একটি ইউনিট ফাঁকা। গতকাল প্রতিবেশীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষ থেকে আবদুল জব্বার এবং তার স্ত্রী ও অপর একটি কক্ষ থেকে মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত সানজিদা ৭ম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহম্মেদ জানান, ধারণা করা হচ্ছে ৩-৪ দিন আগে দুর্বৃত্তরা তিনজনকে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। মৃতদেহে পচন ধরেছে এবং গন্ধ বেরিয়েছে।

ওসি আরও জানান, আবদুল জব্বার যে ইউনিটে ভাড়া থাকতেন সে ইউনিটের কক্ষগুলো পোশাক ও অন্যান্য জিনিসপত্র তছনছ অবস্থায় পাওয়া গেছে।

advertisement