advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সৌদিতে বাংলাদেশি হোটেল ও এজেন্সি ব্যবসায় অনিশ্চয়তা

কামাল পারভেজ অভি,সৌদি আরব
১৫ জুন ২০২০ ১৭:০০ | আপডেট: ১৫ জুন ২০২০ ১৭:২৩
পুরোনো ছবি
advertisement

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছর সৌদি আরবে সীমিত পরিসরে পবিত্র হজ আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ঘোষণার পর দেশটির দুই পবিত্র নগরী মক্কা ও মদিনায় বসবাসরত বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছেন।

বিশেষ করে বাংলাদেশি হোটেল ব্যবসায়ী এবং হজ এজেন্সিগুলো বিভিন্ন সমস্যা পড়েছেন। হজের সময় ঘনিয়ে আসলেও এখনো সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসেনি। তাই বাংলাদেশ থেকে হজের কোনো বুকিং নিতে পারছেন না তারা।

এদিকে সৌদি প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রশাসনিক একটি অংশ চলতি বছর হজ বাতিলের পক্ষে মত দিয়েছেন। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মাথায় রেখে এ সিদ্ধান্তে মত দিয়েছেন তারা।

করোনা পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে হজ ও ওমরাহ ভিসা স্থগিত করে দেশটির সরকার। আগামী ৩০ জুলাই পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও এ নাজুক পরিস্থিতিতে হজ পালন নিয়ে এখনো কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেনি সৌদি আরব সরকার। কোনো সিদ্ধান্ত আসার আগেই আগাম হজের বুকিং না করার আহ্বানও জানিয়েছেন দেশটির হজ বিষয়ক মন্ত্রী।

মক্কার হোটেল ব্যবসায়ী মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক আমাদের সময়কে বলেন, এখন পর্যন্ত হজের ঘোষণা না হওয়ায় আমরা অনিশ্চয়তার মধ্যে আছি। হজের সময় ও খুব নিকটে। এমনিতে করোনার কারণে আমাদের হোটেল ব্যবসায় ধস নেমেছে।

মক্কার ট্রাভেল এজেন্সি ব্যবসায়ী আমান উল্লাহ সমরকন্দী বলেন, আমরা এখনো হজের কোনো প্রস্তুতি নিতে পারেনি। তবে সীমিত পরিসরে হজ হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু চূড়ান্ত ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আমাদের আরও কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে।

সৌদি আরবে প্রতিদিন ব্যাপক হারে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ তথ্যে জানা গেছে, আজ সোমবার সকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ২৭ হাজার ৫৪১ জন। মারা গেছেন ৯৭২ জন। মৃতদের মধ্যে ৩১০ জনই প্রবাসী বাংলাদেশি। সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৮৪ হাজার ৭২০ জন।

advertisement