advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চেয়ারে বসা অবস্থায় মারা গেলেন আইনজীবী

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ জুন ২০২০ ১৮:২১ | আপডেট: ২৬ জুন ২০২০ ২২:১৪
চেয়ারে বসে থেকেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন কৃষ্ণ কমল দত্ত। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

রাজশাহীর দেওয়ানি আদালতের প্রবীণ আইনজীবী কৃষ্ণ কমল দত্ত মারা গেছেন। ৮৫ বছর বয়সে আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে শহরের কুমারপাড়া এলাকার নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়।

কৃষ্ণ কমল দত্তের ভাতিজা শ্যামল কুমার দত্ত গণমাধ্যমকে জানান, নিঃসন্তান কৃষ্ণ কমল দত্ত একাই থাকতেন। তার স্ত্রী গত ২০ বছর ধরে আলাদা থাকছেন। সপ্তাহ দুয়েক আগে বাড়িতে পড়ে গিয়ে কোমরে আঘাত পেয়েছিলেন কৃষ্ণ কমল। তিনি এক সপ্তাহের বেশি সময় জ্বরে ভুগছিলেন। তার দেখাশোনার জন্য গত মঙ্গলবার শ্যামল নাটোরের সিংড়া উপজেলা থেকে রাজশাহীতে আসেন। কৃষ্ণ কমলের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

শ্যামল বলেন, ‘আমি হাসপাতালের আউটডোরে ডাক্তার দেখাতে যাই। জ্বরের কথা শুনে রোগীকে না দেখেই হাসপাতালের করোনা চিকিৎসা কেন্দ্র মিশন হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলা হয়। মিশন হাসপাতালে চিকিৎসক নিশ্চিত করে বলেন, তার করোনা হয়নি। তবে টাইফয়েড হয়েছে কি না পরীক্ষা করাতে বলা হয়। সেই পরীক্ষাতেও কোনো সমস্যা পাওয়া যায়নি। ডাক্তার রোগীকে বাড়িতে রেখে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে তিনি গোঙাচ্ছিলেন। তবে কোনো সাহায্য ছাড়াই চলাফেরা করতে পারছিলেন। তাকে আমি আবারও আজ হাসপাতালে নেওয়ার কথা চিন্তা করছিলাম। বাইরে থেকে খাবার এনে তাকে চেয়ারে নিথর অবস্থায় পাই।’

পরে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সদস্যদের সহায়তায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে তার সৎকারের ব্যবস্থা করা হয়। কোয়ান্টামের রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক মো. কায়সার পারভেজ মেহেদী বলেন, ‘তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন কি না, নিশ্চিত হতে মৃত্যুর পরে তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।’

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সহকারী পরিচালক ও মিশন হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনই তারা কিছু জানাতে পারছেন না।’

advertisement