advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

উদ্ধারকারী জাহাজের ধাক্কায় বুড়িগঙ্গা সেতুতে ফাটল, চলাচল বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৯ জুন ২০২০ ২১:২৭ | আপডেট: ৩০ জুন ২০২০ ১০:১৪
সোমবার সকালে বুড়িগঙ্গায় লঞ্চ ডুবির ঘটনার পর চলমান উদ্ধার অভিযান। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

রাজধানীর পোস্তগোলায় বুড়িগঙ্গা নদীর ওপর বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু-১ (প্রথম বুড়িগঙ্গা সেতু) এর চার লেনের একটিতে আজ সোমবার সন্ধ্যা থেকে যানবাহন চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।

ঢাকার সদরঘাটে আজ সকালে ডুবে যাওয়া লঞ্চ উদ্ধারে যাওয়ার সময় উদ্ধারকারী জাহাজের ধাক্কায় সেতুটিতে ফাটল তৈরি হয় বলে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) জানিয়েছে।

সওজের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (ঢাকা অঞ্চল) সবুজ উদ্দিন খান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘সেতুর একটি জায়গায় ফাটল দেখা দেওয়ায় যানবাহন চলাচল স্থগিত করেছি। আগামীকাল আমাদের বিশেষজ্ঞরা পরিদর্শন করার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরিদর্শন করে দেখা গেছে, সেতুর গার্ডারের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ কারণে ঢাকা-মাওয়া রুটে যান চলাচলের একটি লেন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আগামীকাল বিশেষজ্ঞ দল পরিদর্শনের পর, যদি প্রয়োজন হয়, তবে অন্য লেনও বন্ধ করে দেওয়া হবে।’

আজ সকালে বুড়িগঙ্গা নদীতে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধার করতে নারায়ণগঞ্জ থেকে সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালের দিকে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) উদ্ধারকারী জাহাজ যাচ্ছিল। এ সময় সেই জাহাজের ধাক্কায় সেতুতে ফাটল দেখা দেয়।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক বলেন, ‘উদ্ধারকারী জাহাজের মাস্টার দ্রুত দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছতে চাইছিলেন। তার ভুলে সেতুতে আঘাত লাগতে পারে।’

তবে, সেতুতে যে ফাটল তৈরি হয়েছে, তা তেমন মারাত্মক নয় বলে তিনি মনে করেন।

উদ্ধারকারী জাহাজটি সেতু পার হতে না পারায়, বিকল্প পথ দিয়ে গিয়ে উদ্ধার অভিযান চালিয়েছে বলেও জানান বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান।

advertisement