advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চলে গেলেন স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের লুৎফর

ক্রীড়া ডেস্ক
৩০ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৯ জুন ২০২০ ২২:২৫
advertisement

স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের খেলোয়াড় লুৎফর রহমান আর নেই। ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর সোমবার সকাল পৌনে ৯টায় যশোরের লোন অফিসপাড়া বাসভবনে মারা গেছেন তিনি।

২০১৮ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে ব্রেইন স্ট্রোক করার পর থেকে নিজ বাড়িতেই ছিলেন স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য মো. লুৎফর রহমান। প্যারালাইসিস হয়ে যাওয়া ৬৯ বছর বয়সী লুৎফর রহমানের চিকিৎসা হচ্ছিল না ঠিকমতো।

প্রায় ছয় মাস পর গত জুলাই মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লুৎফর রহমানের চিকিৎসা এবং অন্যান্য সহযোগিতা বাবদ ৩০ লাখ টাকা প্রদান করেছিলেন। গত ১৫ জুলাই লুৎফর রহমানের স্ত্রী মাজেদা রহমানের হাতে ৫ লাখ টাকার চেক এবং ২৫ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র তুলে দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা।

লুৎফরের জন্ম ১৯৫১ সালে। খেলোয়াড়ি জীবনে পারদর্শী ছিলেন ফুটবল ও হকিতে। ১৯৬৫ থেকে ১৯৭৫ পর্যন্ত নিয়মিত খেলেছেন যশোর জেলা ফুটবল দলের হয়ে। ১৯৬৮ সালে পূর্ব পাকিস্তান বোর্ড দলের হয়ে তিনি খেলেছেন পশ্চিম পাকিস্তানের সম্মিলিত বোর্ডের বিপক্ষে।

১৯৬৯ সালে লুৎফর যোগ দেন ঢাকা ওয়ারী ক্লাবে। ১৯৭০ সালে দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের শুরু হলে তিনি কলকাতা গিয়ে স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলে যোগ দেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে জনমত তৈরি করতে ভারতের নানা জায়গায় ঘুরে ফুটবল খেলে এই দল। মুজিবনগরে গঠিত বাংলাদেশ ক্রীড়া সমিতির সাধারণ সম্পাদকও ছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামের এই ফুটবল যোদ্ধা। তিনি এক পুত্র ও এক কন্যার জনক। নিজে ফুটবলার হলেও লুৎফরের একমাত্র ছেলে তানভীর খেলছেন ক্রিকেট।

advertisement
Evaly
advertisement