advertisement
advertisement

পুলিশসহ মৃত্যু আরও ২
নোয়াখালীতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৫

নোয়াখালী প্রতিনিধি
৩০ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৯ জুন ২০২০ ২২:৩৫
advertisement

নোয়াখালীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক পুলিশ সদস্যসহ আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এই প্রথম জেলায় করোনায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৫ জন।

সোমবার সন্ধ্যায় বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস জানান, হাতিয়া উপজেলার নলচিরা নৌপুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ওমর ফারুক (৩৬) অসুস্থবোধ করায় গত ২৪ জুন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে নমুনা দিয়ে যান। ২৫ জুন আসা রিপোর্টে তার করোনা পজিটিভ আসে। এর পর থেকে তিনি

বেগমগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের বাড়িতে হোম আইসোলেশনে ছিলেন। গতকাল তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রাত ১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। এ উপজেলায় মোট মৃতের সংখ্যা ২২।

এদিকে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ও করোনা ফোকাল পার্সন ডা. নিলীমা ইয়াসমিন জানান, সদর উপজেলার অশ্বদিয়া ইউনিয়নের বাদারিপুর গ্রামের বাসিন্দা আজিজুল হক ২০ জুন নমুনা দিয়ে যান। ২৫ জুন আসা রিপোর্টে তার করোনা শনাক্ত হয়। এর পর থেকে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে ছিলেন তিনি। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৭ জুন রাতে সেখানে তিনি মারা যান।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, নোয়াখালীবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে গিয়ে বিভিন্ন স্থানে দায়িত্ব পালনকালে রবিবার পর্যন্ত জেলায় ১৫১ পুলিশ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে জেলায় এএসআই ওমর ফারুক প্রথম পুলিশ সদস্য, যিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন। গতরাতে মারা যাওয়া ওমর ফারুক স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

advertisement