advertisement
advertisement

পাহাড়তলী সেল ডিপোর সরঞ্জাম চুরি
আসামি ছেড়ে বরখাস্ত হলেন রেলের নিরাপত্তা পরিদর্শক

চট্টগ্রাম ব্যুরো
৩০ জুন ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৯ জুন ২০২০ ২২:৩৫
advertisement

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের পাহাড়তলীতে সেল ডিপো থেকে বিভিন্ন সরঞ্জাম চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় চারজনকে গ্রেপ্তার করেছিল রেলের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। তাদের বিরুদ্ধে রেলওয়ে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। এর মধ্যে এক চোরকে ছেড়ে দিয়ে তিনজনকে থানায় সোপর্দ করা হয়। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর পরিদর্শক ই¯্রাফিল মৃধাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে প্রশাসন। গত রবিবার তাকে বরখাস্ত করা হয়।

জানা গেছে, গত শনিবার পাহাড়তলীর সেল ডিপোতে সহকারী প্রকৌশলী (স্টোর) মো. ইউনুসের সহায়তায় রেলের গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জাম পাচারের সময় চারজনকে আটক করে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। আটককৃতরা হলো- মো. শফিকুল ইসলাম, মো. জসিম উদ্দিন ও মো. আলমগীর। আরেকজনকে নিজ ক্ষমতাবলে ছেড়ে দেন সেল ডিপোতে দায়িত্বরত ভারপ্রাপ্ত পরিদর্শক ই¯্রাফিল। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে আসামি ছেড়ে দেওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

নিরাপত্তা বাহিনীর সহকারী কমান্ড্যান্ট সত্যজিৎ দাশ আমাদের সময়কে বলেন, সেল ডিপোতে রেলের লোকজন ছাড়া কারও প্রবেশের অনুমতি নেই। কিন্তু রেলের কর্মচারী হিসেবে অস্থায়ী পাস নিয়ে সেল ডিপোতে প্রবেশ করে এবং একটি ভ্যানে করে রেলের গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জান নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় চারজনকে আটক করলেও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে নিজ সিদ্ধান্তে ভ্যানচালককে ছেড়ে দেন ই¯্রাফিল মৃধা;

যা বেআইনি। ফলে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

আরএনবি পাহাড়তলী চৌকির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজওয়ানুর রহমান রাসেল জানান, শনিবার বিকালে রেলওয়ের বিভিন্ন মালামাল চুরির তিন চোরকে হাতেনাতে ধরা হয়। রবিবার দুপুরে রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনী বাদী হয়ে ওই তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন, পাহাড়তলীর সেল ডিপোর ইনচার্জ উপসহকারী প্রকৌশলী মো. ইউনুসের সহযোগিতায় মালামাল চুরি করছিল।

সূত্র জানায়, রেলওয়ের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় বিভিন্ন সময় চোরচক্রের সদস্যরা রেলের সম্পদ চুরি করছে। এর আগেও এ ধরনের অনেক ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। কিন্তু কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নিতে না পারায় থামছে না চুরি।

advertisement