advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কাজ দেওয়ার নামে  হাসপাতালে ডেকে যৌন হয়রানি ডেপুটি সুপারের

অনলাইন ডেস্ক
৩০ জুন ২০২০ ২৩:৪১ | আপডেট: ৩০ জুন ২০২০ ২৩:৪১
অভিযুক্ত অনন্য ধর
advertisement

এক নারীকে কাজ দেওয়ার নাম করে ডেকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি হাসপাতালের ডেপুটি সুপারের বিরুদ্ধে। আর এ যৌন হয়রানির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজের খবরে বলা হয়, পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের নন মেডিকেল ডেপুটি সুপার অনন্য ধরের বিরুদ্ধে উঠেছে এ যৌন হয়রানির অভিযোগ। আর এ ঘটনার ভিডিও অনেকেই ফেসবুকে পোস্ট করছেন।

ভিডিওতে দেখা গেছে, অনন্য ধর তার কক্ষের ভেতরে এক মধ্যবয়স্ক নারীর স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করছেন। এই ফুটেজ প্রকাশ্যে আসার অনন্য ধরের  বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ সামনে আসতে শুরু করেছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, নারীদের কাজ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে ডেপুটি সুপার কাটোয়া মহুকুমা হাসপাতালের মধ্যেই মহিলাদের যৌন হেনস্থা করেন। এমনকি নারীদের দিয়ে যৌন ব্যবসাও চালান। কয়েক বছর আগে অনন্য ধরের বিরুদ্ধে  কাটোয়া থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের হয়েছিল। তবে উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে তা থেকে রেহাই পান অনন্য ধর।

এদিকে, নিজের কুকীর্তি ভাইরাল হওয়ার পর অনন্য ধর ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছেন। তিনি বর্তমানে হাসপাতালের এইডিইউয়ে (হাই ডিপেনডেন্সি ইউনিটে) ভর্তি আছেন।

কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডাক্তার রতন শাসমল বলেন,  ‘ফেসবুকে ভাইরাল পোস্টটি দেখেছি। এই ভিডিও ফুটেজটি হাসপাতালের ভেতরের। হাসপাতালের ভেতরে এই ধরনের ঘটনা বাঞ্ছনীয় নয় । পুরো ঘটনার বিভাগীয় তদন্ত হবে  ‘

তিনি বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলছি । ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হলে  অভিযুক্তের উপযুক্ত শাস্তি হবে।’

advertisement