advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সব খবর

advertisement

চার মাসের শিশুকে গলা কেটে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
৪ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৪ জুলাই ২০২০ ০৯:০৭
advertisement

রাজধানীর আদাবরে আয়শা আক্তার সাদিয়া নামে চার মাস বয়সী এক ঘুমন্ত শিশুকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল শুক্রবার দুপুরে আদাবরের ‘আলিফ হাউজিং’-এর পাশে শাকিলের বস্তি থেকে শিশুটির রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
ওই বস্তিরই ৫ জন বাসিন্দার ওপর সন্দেহ পোষণ করে নিহতের স্বজনরা জানান, বাইরের কেউ নয়, বাসার আশপাশের কেউ ব্লেড দিয়ে গলা কেটে শিশু সাদিয়াকে হত্যা করেছে। হত্যায় ব্যবহৃত ব্লেড বস্তির বাথরুমেই পেয়েছেন তারা। রাতে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।
এদিকে সাদিয়ার মৃত্যুতে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন তার বাবা-মাসহ এলাকাবাসী। অপরাধী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান তারা।
আদাবর থানার এসআই সোহেল রানা জানান, শিশু সাদিয়ার বাবা শাহজাহান একজন দিনমজুর। পরিবারকে নিয়ে ওই বস্তির একটি টিনশেড ঘরে থাকতেন। কাজের উদ্দেশ্যে শাহজাহান সকালে বাসা থেকে বের হয়ে যান। দুপুর ১২টার দিকে সাদিয়ার মা তাকে টিনশেড ঘরে ঘুম পাড়িয়ে রেখে পঞ্চাশ গজ দূরে একটি কক্ষে রান্না করছিলেন। বস্তির কোথাও খেলা করছিল শিশু সাদিয়ার ভাই রাব্বি। এই সময়টাতেই কোনো দুর্বৃত্ত ঘুমন্ত শিশুটির গলা কেটে পালিয়ে গেছে। রান্নার একপর্যায়ে সাদিয়াকে দেখে আসতে রাব্বিকে পাঠান তার মা। রাব্বি এসে দেখে বিছানায় বোনের রক্তাক্ত দেহ পড়ে আছে। খবর পেয়ে সাদিয়ার মা রান্নাঘর থেকে এসে এমন দৃশ্য দেখে মূর্ছা যান। স্থানীয়রা শিশুটিকে ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত
ঘোষণা করেন। শিশু সাদিয়ার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
আদাবর থানার ওসি শহিদুজ্জামান বলেন, এত ছোট শিশুকে কে বা কারা এভাবে হত্যা করল তা এখনো জানা যায়নি। বস্তির বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও ঘটনায় জড়িত সন্দেহে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। আমরা কিছু ক্লু পেয়েছি যা তদন্তের স্বার্থে এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে হত্যাকারীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে আইনের আওতায় আনা হবে।

advertisement
Evaly
advertisement