advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কিস্তি দিতে না পারায় মারধর মুক্তিযোদ্ধাকে

ধামরাই প্রতিনিধি
৪ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩ জুলাই ২০২০ ২৩:৩৬
advertisement

ঢাকার ধামরাইয়ে কিস্তি দিতে না পারায় এক মুক্তিযোদ্ধাকে বাসায় আটকে রেখে মারধরের অভিযোগ উঠেছে একটি বেসরকারি সংস্থার (এনজিও) পরিচালকের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে উদ্ধার করে তার স্বজনদের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় ‘পল্লি মঙ্গল স্বর্ণিভর’-এর পরিচালক মতি রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাকের (৬৫) গ্রামের বাড়ি উপজেলার পটল গ্রামে। তিনি অবসরপ্রাপ্ত একজন শিক্ষক।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, আশুলিয়া থানার গণকপাড়া গ্রামের চান মিয়ার

ছেলে মতি রহমানের ‘পল্লি মঙ্গল স্বর্ণিভর’ নামে একটি এনজিও রয়েছে। ধামরাই উপজেলার ভাড়ারিয়া আমতলা বাসস্ট্যান্ডে ওই এনজিও অফিস। মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক ওই এনজিও থেকে তিন বছর আগে দুই লাখ টাকা কিস্তি নেন। কিস্তিও ঠিকঠাকমতো দিচ্ছিলেন। করোনা পরিস্থিতিতে সরকার কিস্তি আদায় বন্ধ ঘোষণা করলে রাজ্জাক তিন মাস ধরে কিস্তি দেওয়া বন্ধ করে দেন। গত বৃহস্পতিবার বিকালে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে ফোন করে আমতলা বাজারে ডেকে আনেন এনজিও মালিক মতি।

আমতলা বাজারে এলে তাকে কার্যালয়ে নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার কাছে কিস্তির বাকি টাকা দাবি করেন। তিনি টাকা দেওয়ার সময় চাইলে তাকে বেদম মারধর করে একটি ঘরে আটক করে রাখেন এনজিও মালিক মতি রহমান। পরে রাত রাত ৮টার দিকে মুক্তিযোদ্ধার ছেলে রাসেল হোসেনকে ফোন করে কিস্তি টাকা দিয়ে তার বাবাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে বলেন। এ সময় ছেলে রাসেল থানায় ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে উদ্ধার করে। এ ছাড়া মতি রহামানকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।

ধামরাই থানার উপ-পুলিশ (এসআই) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. আবুল খায়ের মিয়া বলেন, মুক্তিযোদ্ধাকে উদ্ধার করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং থানায় মামলা হয়েছে। পরে আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement