advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

শিরোপার সুবাস পাচ্ছে রিয়াল

ক্রীড়া ডেস্ক
৪ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৪ জুলাই ২০২০ ০০:০৭
advertisement

গেটাফেকে হারাতে পারলেই বার্সেলোনার চেয়ে ৪ পয়েন্টে এগিয়ে যেত রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের বেশিরভাগ সময় অবশ্য গেটাফে বার্সার আশার পালে হাওয়া দিচ্ছিল। সবকিছু উধাও হয়ে গেছে এক মুহূর্তে। নির্ধারিত সময়ের ১১ মিনিট বাকি থাকতে সার্জিও রামোস পেনাল্টি থেকে গোল করে হুট করে জেঁকে বসা অস্বস্তি দূর করেছেন। আরও এক জয়ে তাই শিরোপার পথে বড় এক ধাপ পা রাখল জিনেদিন জিদানের দল। লা লিগায় বাকি আর ৫ ম্যাচ, রিয়াল মাদ্রিদ বার্সার চেয়ে এগিয়ে গেল ৪ পয়েন্টে।

স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে এখন যেন দ্বৈত ভূমিকা পালন করছেন অধিনায়ক সার্জিও রামোস। নিজের মূলত দায়িত্ব অর্থাৎ রক্ষণ সামলানোর বিষয়টি তো আছেই, পাশাপাশি আক্রমণ এবং গোল করেও দলকে এনে দিচ্ছেন মূল্যবান পয়েন্ট, যার সব শেষ উদাহরণ গেটাফের বিপক্ষের ম্যাচে।

ম্যাচের শুরুতে বল দখলে রিয়াল এগিয়ে থাকলেও আক্রমণে আধিপত্য ছিল গেটাফের। অষ্টম মিনিটে গোলও পেত তারা। মাথিয়াস অলিভেরার হেডে বল চাভিয়েরের হাঁটুতে লেগে পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়াতে যাচ্ছিল। দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে জাল অক্ষত রাখেন থিবো কোর্তোয়া।

প্রথম ২২ মিনিটে রিয়ালের রক্ষণে একচেটিয়া চাপ ধরে রাখে গেটাফে। এ সময় চারটি কর্নার পায় তারা, বিপরীতে স্বাগতিকরা উল্লেখযোগ্য কোনো আক্রমণই করতে পারেনি।

পরের মিনিটেই পাল্টা আক্রমণে দারুণ এক সুযোগ তৈরি করে তারা। লুকা মদ্রিচের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে ফেরলঁদ মঁদি ছোট ডি-বক্সের মুখে নিচু পাস দেন। ছুটে গিয়ে ভিনিসিউস জুনিয়রের প্রচেষ্টা ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক ডেভিদ সোরিয়া।

কুলিং ব্রেকের পর পরই আরেকটি ভালো সুযোগ নষ্ট হয় রিয়ালের। রামোসের ক্রসে ইসকোর ভলি রুখে দেন সোরিয়া। দারুণ পাসিং ফুটবলে ওঠা আক্রমণে ৫৮তম মিনিটে সুযোগ পেয়েছিলেন মদ্রিচ। তবে তার শট এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। আট মিনিট পর অ্যাসেনসিওর পাস পেনাল্টি স্পটের কাছে পেয়ে দুর্বল শট নিয়ে হতাশা বাড়ান করিম বেনজেমা।

গোলের অপেক্ষা শেষ হয় ৭৯তম মিনিটে। ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়া দানি কারভাহাল ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ঠা-া মাথায় নিখুঁত স্পট কিকে গোলটি করেন রামোস। আসরে রিয়াল অধিনায়কের এটি নবম গোল, দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। শেষ ১১ ম্যাচে এটি তার ষষ্ঠ গোল। বাকি সময়ে কোনো পক্ষই তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। দুই মৌসুম পর শিরোপা পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে দারুণ এক জয়ের আনন্দে মাঠ ছাড়ে মাদ্রিদের দলটি।

অনাকাঙ্খিত বিরতির পর পুনরায় শুরু হওয়া লিগে ছয় ম্যাচ খেলে সবকটিতে জিতল রিয়াল। ২০১৬-১৭ মৌসুমের পর এই প্রথম টানা ছয় ম্যাচ জিতল তারা। যার ফলে লিগের ৩৩ রাউন্ড শেষে এখন বার্সেলোনার চেয়ে পরিষ্কার ৪ পয়েন্টে এগিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ। সব শেষ ২০১৬-১৭ মৌসুমের লা লিগা চ্যাম্পিয়নদের সংগ্রহ ৭৪ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার সংগ্রহ ৭০ পয়েন্ট। বাকি থাকা পাঁচ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট পেলেই শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যাবে রিয়ালের।

advertisement