advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আবারও মাশরাফি করোনা পজিটিভ

ক্রীড়া প্রতিবেদক
৪ জুলাই ২০২০ ১৬:৫৭ | আপডেট: ৪ জুলাই ২০২০ ১৯:১১
মাশরাফি মোর্ত্তজা। ফেসবুক থেকে নেওয়া ছবি।
advertisement

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি মোর্ত্তজা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন গত মাসের ২০ তারিখ। মাঝে বাসায় চিকিৎসা ও সিমএমইচে রুটিন চেকাপের পর গত মঙ্গলবার করোনা টেস্ট করলে আবারও পজিটিভ আসে। দ্বিতীয়বারের পরীক্ষায় পজিটিভ আসলেও সুস্থ আছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

দ্বিতীয়বার মাশরাফির করোনা নেগেটিভ হওয়ার বিষয়টি দৈনিক আমাদের সময়কে তার পারিবারিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। জানা গেছে গত মঙ্গলবার টেস্ট করা হয়, পরদিন বুধবার ফলাফল পজিটিভ আসে। মাশরাফি বাসায়ই আছেন এবং তিনি সুস্থ আছেন।  

এর আগে গুজব ছড়ানো হয়েছিল মাশরাফি করোনা নেগেটিভ! কিছু অনলাইন পোর্টালের সংবাদের ভিত্তিতে গত রোববার (২৮ জুন) দুপুর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে মাশরাফির করোনা নেগেটিভ বলে গুজব ছড়াতে থাকে। আসলে মাশরাফি তখন  করোনা টেস্টই করাননি। গুজব থামাতে মাশরাফি নিজেই ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি জানান, করোনা নেগেটিভের সংবাদটি সত্য নয়।

ওইদিন মাশরাফি ফেসবুকে লিখেন, ‘বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে, আমি কোভিড-১৯ নেগেটিভ। এটি মোটেও সত্য নয়। এখনও পুনরায় টেস্ট করাইনি। ১৪ দিন হওয়ার পর পর টেস্ট করানো ইচ্ছে আছে। মহান আল্লাহর ইচ্ছায় ও আপনাদের দোয়ায় এমনিতে ভালো আছি। বাসায় থেকেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিচ্ছি। বড় কোনো শারীরিক সমস্যা নেই। আমার জন্য এবং দেশজুড়ে আক্রান্ত সবার জন্য দোয়া প্রার্থনা করছি। সবাই সাবধানে থাকবেন, ভালো থাকবেন। আমরা সবাই মিলেই লড়াই চালিয়ে যাব। আল্লাহ সহায়।’

প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক এবিএম আবদুল্লাহ নিয়মিত খোঁজ খবর নিচ্ছেন। মাঝে একবার সিএমইচে গিয়েছিলেন নিয়মিত চেকাপের জন্য। চেকাপ করিয়েই আবার বাসায় ফেরেন।

করোনায় আক্রান্ত হন মাশরাফির ভাই মোরসালিন মোর্ত্তজাও। গত মঙ্গলবার তার করোনা পজিটিভের রিপোর্ট আসে। এর আগে গত শনিবার মাশরাফি করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর তার দুই সন্তান সাহেল ও হুমায়রাকে নড়াইলে মা-বাবার কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। ওখানে তাদের করোনা টেস্ট করালে সবারই নেগেটিভ আসে।

advertisement