advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দেশে করোনায় মৃত্যু ২ হাজার ছাড়াল

নিজস্ব প্রতিবেদক
৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৫ জুলাই ২০২০ ২২:৫৬
advertisement

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫৫ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২ হাজার ৫২ জনে। ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২ হাজার ৭৩৮ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা রোগী হয়েছেন ১ লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৯০৪ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৭২ হাজার ৬২৫ জন। গতকাল রবিবার দুপুর আড়াইটায় দেশের কোভিড-১৯ সম্পর্কিত সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এসব তথ্য জানান অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, দেশে ৭৩টি ল্যাবে পরীক্ষা চললেও ২৪ ঘণ্টায় ৬৮টি ল্যাবের তথ্য আমরা পেয়েছি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৩ হাজার ৯৬৪টি। আগের নমুনাসহ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৯৮৮টি। এসব নমুনায় পরীক্ষায় রোগী শনাক্ত

হয়েছে ২ হাজার ৭৩৮ জন। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮ লাখ ৪৬ হাজার ৬২টি। ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৫৭ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৪ দশমিক ৭২ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৬ শতাংশ।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৫৫ জন। এর মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ এবং ১৮ জন নারী। এখন পর্যন্ত যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ১ হাজার ৬২৪ জন, যা শতকরা ৭৯ দশমিক ১৪ শতাংশ এবং নারী ৪২৮ জন, যা শতকরা ২০ দশমিক ৮৬ শতাংশ।

মৃতের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৯ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১৭ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন এবং শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

মৃতের অঞ্চল বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৩ জন, বরিশাল বিভাগে ৫ জন, রাজশাহী বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে ৬ জন, সিলেটে ২ জন, রংপুর বিভাগে ৮ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে একজন রয়েছেন।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৪৪৯ জনকে এবং এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৩০ হাজার ৮৭২ জনকে। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৪৮৩ জন; এখন পর্যন্ত মোট ছাড়া পেয়েছেন ১৪ হাজার ১৫৭ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৬ হাজার ৭১৫ জন।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ২ হাজার ৮৮৭ জনকে, এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৩২ জনকে। ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ২ হাজার ৫৩৫ জন, এখন পর্যন্ত মোট ছাড়া পেয়েছেন ৩ লাখ ১২ হাজার ৫৩০ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬৪ হাজার ৫০২ জন।

advertisement