advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ওয়ালটনের শোরুমে ডাকাতি গ্রেপ্তার চার

নিজস্ব প্রতিবেদক
৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুলাই ২০২০ ০০:২৬
advertisement

রাজধানীর পান্থপথের ওয়ালটন প্লাজা শোরুমে ডাকাতির ঘটনায় জড়িত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিভিন্ন স্থানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ডাকাতির কাজে অংশ নেওয়া ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলেন- রবিউল ইসলাম, সুমন, রানা ও সাথী। তাদের মধ্যে রবিউল ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তিনি ডাকাতিতে সরাসরি জড়িত ছিলেন না। তবে ডাকাতির মালামাল কিনেছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনার সঙ্গে ৭-৮ জন জড়িত। তারা জেলখানায় বসে ডাকাতির পরিকল্পনা করেছিল। জেল থেকে বেরিয়ে একে অন্যের সঙ্গে যোগাযোগ করে ওয়ালটনের শোরুমে ডাকাতি করেন। রবিউলকে

তিনদিন আগে ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্য তিনজনকে গত শনিবার রাতে ঢাকার আশপাশের এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে গতকাল শেরেবাংলানগর থানার এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের ডিসি হারুন-অর-রশিদ জানান, গত ২৩ জুন মধ্যরাতে রাজধানীর শেরেবাংলানগর থানাধীন পান্থপথের ওয়ালটন প্লাজা শোরুমে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওয়ালটন শোরুম টিম ম্যানেজার মো. রানা মিয়া পরদিন শেরেবাংলানগর থানায় মামলা করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, ২৪টি ওয়ালটন ফ্রিজ, ৫টি এলইডি টেলিভিশন, একটি মোবাইলফোন নিয়ে যায় ডাকাতরা। যার দাম ৬ লাখ টাকারও বেশি।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ডিসি হারুন-অর-রশিদ জানান, ৭/১৫ পান্থপথ ওয়ালটন প্লাজার মালামাল কিশোরগঞ্জ জেলার ডিলারের কাছে পৌঁছানের উদ্দেশ্যে নিজস্ব পরিবহনে তোলা হয়। পণ্যের চালান কপি ড্রাইভার আনোয়ার হোসেন ও হেলপার মিরাজের কাছে হস্তান্তর করে শোরুম কর্মচারীরা চলে যান। এর পরই একটি খালি পিকআপে ৭-৮ জন এসে চাপাতির ভয় দেখিয়ে ওয়ালটন কোম্পানির গাড়ির ড্রাইভার ও হেল্পারদের গাড়িতে ওঠায়। পরে বিভিন্ন জায়গায় মালামাল নামিয়ে পালিয়ে যায়। মামলার ঘটনার তেমন কোনো ক্লু না থাকায় তদন্ত শুরু করতে হয় বড় পরিসরে। প্রথমে সংশ্লিষ্ট এলাকাসহ ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানের সিসিটিভি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়। ফুটেজ যাচাই-বাছাইয়ে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তিরও সহায়তা নেওয়া হয়।

শেরেবাংলানগর থানার ওসি জানে আলম মুন্সি আমাদের সময়কে বলেন, বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া ১৮টি ওয়ালটন ফ্রিজ এবং তিনটি এলইডি টেলিভিশন উদ্ধার করা হয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement