advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সব খবর

advertisement

ভারত ও ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ
বাফুফের ভাবনায় সিলেট

ক্রীড়া প্রতিবেদক
৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুলাই ২০২০ ০০:৩৬
advertisement

ভারত ও ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ সিলেটে আয়োজন করা হতে পারে। অবশ্য এ বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তবে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ জানিয়েছেন, ভারত ও ওমানের বিপক্ষে বিশ্বকাপ এবং এশিয়ান কাপ ফুটবলের এ ম্যাচ দুটি সিলেটে অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ ফুটবলের চারটি ম্যাচ বাকি আছে বাংলাদেশের। এর মধ্যে দেশের মাটিতে তিনটি ম্যাচ খেলবেন লাল-সবুজরা। আগামী ৮ অক্টোবর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে। কাতার ম্যাচের আয়োজক দোহা। ১৩ অক্টোবর জসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে কাতার ও বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে। ভারত ও ওমানের বিপক্ষে অনুষ্ঠেয় ম্যাচের ভেন্যু এখনো নির্ধারিত হয়নি। বাফুফের পরিকল্পনায় ছিল ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম। এ ভেন্যুতেই ভারত ও ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ আয়োজন করতে চেয়েছিল দেশের ফুটবল ফেডারেশন। তবে করোনা ভাইরাস বাফুফের ভাবনায় পরিবর্তন আনতে বাধ্য করেছে! অক্টোবর ও নভেম্বরে দেশের পরিস্থিতি কেমন থাকবে তার ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। করোনা ভাইরাসের কারণে খেলোয়াড়দের নিরাপত্তায় ম্যাচ আয়োজনেও ফিফা-এএফসির তরফ থেকে কঠোর নির্দেশনা থাকবে। প্রতিটি দলের জন্য আলাদা আবাসন, আইসোলেশন, কোভিড-১৯ টেস্ট, আলাদা অনুশীলন ভেন্যুÑ এমন অনেক কিছু নির্দেশনা থাকবে। আর তাই আলাদাভাবে ভেন্যু প্রস্তুত করতে বেশ ঝক্কি-ঝামেলা পোহাতে হবে। এ কারণেই একটি ভেন্যুতেই বাংলাদেশের আফগানিস্তান, ভারত (১২ নভেম্বর) ও ওমানের (১৭ নভেম্বর) বিপক্ষে ম্যাচ আয়োজন করার পক্ষে বাফুফে। তবে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত নয়। পরিস্থিতির উন্নতি হলে একটি ম্যাচ সিলেটে এবং বাকি দুটি ম্যাচ ঢাকায় আয়োজন করা হতে পারে।

বাংলাদেশ ‘ই’ গ্রুপে রয়েছে। ৫ দলের মধ্যে ১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে অবস্থান লাল-সবুজদের। আগের চার ম্যাচে শুধু ভারতের বিপক্ষে কলকাতার ম্যাচটি ড্র (১-১) করতে পেরেছে বাংলাদেশ। বাকি ৩ ম্যাচেই পরাজয়ের তেতো স্বাদ পেতে হয়েছে। এবার ঘরের মাটিতে খেলবেন জামাল ভূঁইয়ারা। তাই তো আশার পালে ভেলা ভাসাচ্ছেন তারা। আফগানিস্তান ও ভারতকে পাখির চোখ করেছেন। অবশ্য একটি জয় পেলেই ২০২২ সালে অনুষ্ঠেয় কাতার বিশ^কাপ বাছাই পর্ব কিছুটা ভালোভাবে শেষ হবে বলে মনে করছেন বাংলাদেশের ইংলিশ কোচ জেমি ডে।

advertisement
Evaly
advertisement