advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

গালওয়ান থেকে সেনা সরাচ্ছে চীন, তৈরি হলো ‘বাফার জোন’

অনলাইন ডেস্ক
৬ জুলাই ২০২০ ১৩:০৬ | আপডেট: ৬ জুলাই ২০২০ ১৬:৫৫
গালওয়ান উপত্যকা
advertisement

অবশেষে পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ‘চোখে-চোখ’ অবস্থান থেকে কিছুটা পিছিয়ে গেল চীনের সেনারা। উত্তেজনা কমাতে ‘বাফার জোন’ তৈরির উদ্দেশ্যেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সরকারি সূত্র।

সংবাদসংস্থা এএনআই বরাত দিয়ে আজ সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা।

খবরে বলা হয়েছে, আপাতত গালওয়ানেই সেনা পিছনোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গোগরা হট স্প্রিং এরিয়াতেও প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তবে পূর্ব লাদাখের প্যাংগং লেকের উত্তরের ‘ফিঙ্গার এরিয়া’য় পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন হয়নি।

এদিন প্রকাশিত খবরে বলা হয়, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার (এলএসি) ভেতরে ভারতীয় ভূখণ্ডে অবস্থিত ওই এলাকা থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার সরেছে চীন সেনা।

এ ছাড়া কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়েছে, ভারতীয় সেনাও আগের অবস্থান থেকে কিছুটা পিছিয়ে এসেছে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ জুন গালওয়ানের পেট্রোলিং পয়েন্ট-১৪ অদূরে চীনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছিল। চীনের তরফেও প্রায় ৪৫ জন সেনা হতাহত হয় বলে সেনা সূত্রে জানানো হয়। এরপর থেকেই দু'দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু জানায়, দুই পক্ষের কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠকে রোববার একটি সমঝোতায় পৌঁছায় দিল্লি ও বেইজিং। চীন তার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, কাজ করছে কিনা সেটি যাচাই করতে একটি অনুসন্ধান চালায় ভারতীয় সেনা। এতে দেখা যায়, চীনা সেনারা অস্থায়ী ছাউনি অপসারণ করে পেছনে সরে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে ভারত সরকারের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, সরাসরি গিয়ে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হয়। চীনা সেনারা গালওয়ানের সংঘর্ষের ২ কিমি দূরে সরে যাচ্ছে। উভয়পক্ষের অস্থায়ী ছাউনি সরিয়ে ফেলা হচ্ছে।

advertisement