advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘মস্তিষ্কখেকো অ্যামিবা’য় ফ্লোরিডায় সতর্কতা জারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৭ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ জুলাই ২০২০ ০১:৪৫
advertisement

বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা ভাইরাসের মহামারী। এর মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় বিরল ধরনের মস্তিষ্কখেকো অ্যামিবা শনাক্ত হয়েছে। ইতোমধ্যে এক ব্যক্তির শরীরে মিলেছে এর অস্তিত্ব। এ কারণে ওই এলাকায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। খবর দি ইনডিপেনডেন্ট।

জানা গেছে, হিলসবোরো কাউন্টির এক অধিবাসী নায়েগ্লেরিয়া ফাওলেরি নামের ওই ক্ষতিকর অ্যামিবায় আক্রান্ত হয়েছেন। সাধারণত যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্যগুলোয় এ অ্যামিবায় আক্রান্ত হতে দেখা গেলেও ফ্লোরিডার ক্ষেত্রে তা বিরল। সেখানে ১৯৬২ সাল থেকে এ পর্যন্ত এমন ৩৭টি ঘটনা দেখা গেছে। ১৯৬০ সালে অস্ট্রেলিয়ায় হ্রদের পানিতে প্রথম মস্তিষ্কখেকো অ্যামিবাদের সন্ধান মিলেছিল। দ্রুত কোষ বিভাজন করে অ্যামিবারা। সে জন্য বট ওয়াটার লেক বা উষ্ণ প্রস্রবণগুলোয় এদের দেখা মেলে অনেক বেশি। শিল্পাঞ্চলের কাছাকাছি এলাকায়, দূষিত পানিতেও দেখা মেলে এদের।

দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার না করা সুইমিং পুল বা ক্লোরিনেটেড নয় এমন বদ্ধ পানিতে দ্রুত ছড়ায় অ্যামিবারা। এককোষী হলেও এদের প্রভাব মারাত্মক। মানুষের স্নায়ুকোষকে খুব দ্রুত ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারঙ্গম এ অ্যামিবা। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, কোনোভাবে পানির মাধ্যমে এ অ্যামিবা গিলে ফেললে ততটা ক্ষতি হয় না। তবে কোনোভাবে নাক দিয়ে যদি শরীরে প্রবেশ করে তা হলেই এরা ভয়ঙ্কর আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে। জ্বর, মাথাব্যথা, বমি, পেশির খিঁচুনির মতো উপসর্গ শুরু হয় আর চিকিৎসা গ্রহণ না করলে মস্তিস্ক দ্রুত ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এমনকি আক্রান্তদের বেশিরভাগই এক সপ্তাহের মধ্যে মারা যায়।

 

 

advertisement
Evaly
advertisement