advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ম্যান সিটির হার

ক্রীড়া ডেস্ক
৭ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৬ জুলাই ২০২০ ২৩:০৪
advertisement

বল নিয়ন্ত্রণে রেখে, আক্রমণে আধিপত্য করেও পারল না ম্যানচেস্টার সিটি। প্রথমার্ধে হজম করা গোলটি শেষ পর্যন্ত শোধ করতে পারেনি পেপ গুয়ার্দিওলার দল। সাউদাম্পটনের মাঠ থেকে ফিরেছে হার নিয়ে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে রবিবার ১-০ গোলে হারে সিটি। লিগের প্রথম পর্বে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে দলটির বিপক্ষে ২-১ গোলে জিতেছিল গত দুবারের চ্যাম্পিয়নরা।

লিগের মুকুট হারানো সিটির চলতি আসরে এটি নবম হার। ৩৩ ম্যাচে ২১ জয় ও তিন ড্রয়ে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে তারা। লিভারপুলের শিরোপা নিশ্চিত হওয়ার ঠিক পরের ম্যাচেই তাদেরকে নাকানিচুবানি খাইয়ে ছেড়েছিল ম্যান সিটি। নিজেদের ঘরের মাঠের ম্যাচে জিতেছিল ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে। চ্যাম্পিয়নদের উড়িয়ে দেওয়ার পরের ম্যাচেই ফের হোঁচট খেল সিটিজেনরা। তা-ও কিনা টেবিলের ১৩ নম্বর দলের কাছে।

ম্যান সিটির হোঁচট খাওয়ার দিনে আবার দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে লিভারপুল। অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে তারা জিতেছে ২-০ গোলে। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে গোল দুটি করেন সাদিও মানে এবং কার্টিস জোনস। ফলে তাদের পয়েন্টের সেঞ্চুরি করার সম্ভাবনা টিকে রইল বেশ ভালোভাবেই।

লিগের ৩৩ রাউন্ড শেষে চ্যাম্পিয়ন শিরোপা নিশ্চিত হওয়া লিভারপুলের সংগ্রহ ৮৯ পয়েন্ট। সেঞ্চুরি করতে বাকি পাঁচ ম্যাচ থেকে ১১ পয়েন্ট পেলেই হবে তাদের।

লিগে সিটির নবম হারের পর ৩৩ ম্যাচে পয়েন্ট ৬৬। ম্যানেজেরিয়াল ক্যারিয়ারে এক মৌসুমে লিগে সবচেয়ে বেশি হারের রেকর্ড আগেই হয়ে গেছে গার্দিওলার। সাউদাম্পটনের কাছে হারের পর কোনো জবাবই নেই তার কাছে। তিনি বলেন, ‘আমরা বেশ ভালোই খেলেছি; কিন্তু সেটাও জেতার জন্য যথেষ্ট হয়নি।’ ম্যাচের পর দলের পারফরম্যান্স নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না গার্দিওলা। তিনি বলেন, ‘আমরা যে গোল করতে পারি না, তেমন দাবি করা যাবে না। কারণ লিগে সবচেয়ে বেশি গোল আমরাই করেছি। আমরা প্রচুর সুযোগ তৈরি করেছি আগেও। এই মৌসুমেও আমাদের বিপক্ষে প্রতিপক্ষ সবচেয়ে কম সুযোগ তৈরি করতে পেরেছে; কিন্তু সমস্যা হলোÑ আমরা অনেক বেশি ম্যাচ হেরে ফেলেছি। এমনটা কেন হচ্ছে তার কারণ খুঁজে বের করা আমার জন্যও কঠিন।’

advertisement