advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বড়াইগ্রামে ঋণের চাপে এক ব্যক্তির আত্মহত্যা

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি
৭ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ জুলাই ২০২০ ০০:১৫
advertisement

নাটোরের বড়াইগ্রামে করোনাকালে পোল্ট্রি ব্যবসায় লোকসানের কারণে ঋণের কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় মানসিক চাপে আত্মহত্যা করেছে পিটার কস্তা (৪২)।

গতকাল উপজেলার জোনাইল পারবোর্ণী গ্রামে নিজবাড়িতে তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পিটার ওই গ্রামের মৃত শিমন কস্তার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পিটার কস্তা জোনাইল বাজার এলাকার বিভিন্ন সুদি মহাজনের কাছ থেকে চড়া সুদে ঋণ নিয়ে পোল্ট্রি ব্যবসা করছিল। পোল্ট্রি ব্যবসায় লোকসান হওয়ায় ধীরে ধীরে তার ঋণ দাঁড়ায় প্রায় ২৫ লাখ টাকা। এত টাকা কীভাবে পরিশোধ করবেন এ নিয়ে গত কয়েক দিন পিটার এলোমেলো আচরণ করে। অবশেষে সোমবার ভোরে নিজ বাড়ির গোয়াল ঘরে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলিপ কুমার দাস বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে পিটার কস্তা ঋণের চাপে আত্মহত্যা করেছেন।

এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে সদর হাসপাতাল মর্গে।

advertisement
Evaly
advertisement