advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ধর্ষণ মামলার আসামি মামুন চেয়ারম্যানকে বহিষ্কার

রাঙামাটি প্রতিনিধি
৭ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ জুলাই ২০২০ ০২:১৩
ভূষণছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মামুন
advertisement

‘বিয়ের প্রলোভনে’ ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলার আসামি রাঙামাটির বরকল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও ভূষণছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মামুনকে (৪০) যুবলীগের সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। মামলা হওয়ার ১২ দিনের মাথায় দলীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করল সংগঠনটি। মামলা হওয়ার পর থেকেই মামুন গ্রেপ্তার এড়াতে আত্মগোপনে আছেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত গত ৫ জুলাই চিঠিতে মামুনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান শেখ ফজলে সামস পরশের নির্দেশে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা অন্তর্গত বরকল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুনকে অনৈতিক কর্মকা-ের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে বহিষ্কার করা হলো।’ রাঙামাটি জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৪ জুন বরকল থানায় ধর্ষিতার বাবা নাছির হাওলাদার ধর্ষণ মামলাটি দায়ের করেন। পরদিন ২৫ জুন রাঙামাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে ধর্ষিতা নারীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে।

তবে মামলা হওয়ার ১২ দিন পার হলেও মামুনকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশের দাবি, ‘মামুনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’ বরকল থানার ওসি কাজী মো. জসিম উদ্দিন বলেন, ‘আসামি মামুন চেয়ারম্যান পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করতে খুঁজছে পুলিশ।’

advertisement