advertisement
advertisement

সংগীতজ্ঞ অনিল বিশ্বাসের জন্ম

আমাদের সময় ডেস্ক
৭ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৭ জুলাই ২০২০ ০১:০৯
advertisement

অনিল বিশ্বাস (১৯১৪-২০০৩) প্রখ্যাত বাঙালি সুরকার ও সংগীত পরিচালক। তিনি পাশ্চাত্য অর্কেস্ট্রা সংগীত ও বাংলার লোকসংগীতের সংযোগে ভারতীয় চলচ্চিত্র সংগীতের বিশেষ উন্নতিসাধন করেন। বাদ্যবৃন্দ ও বৃন্দগানের ক্ষেত্রেও তার অবদান রয়েছে। চলচ্চিত্রের সংগীতে

তার নিরবচ্ছিন্ন অবদানের কারণে ভারতীয় চলচ্চিত্র মহলে তাকে ‘পিতামহ ভীষ্ম’ আখ্যা দেওয়া হয়।

অনিল বিশ্বাসের জন্ম বাংলাদেশের বরিশালে, ১৯১৪ সালের ৭ জুলাই। কৈশোরে স্বাধীনতা আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। ১৯৩০ সালে সংগীতের টানে চলে আসেন কলকাতায়। যুক্ত হন মেগাফোন কোম্পানির সঙ্গে। গানপ্রতি ৫ টাকা পারিশ্রমিকে শুরু করেন গীতি রচনা ও সুর সংযোজনার কাজ। ১৯৩৪ সালে পাড়ি দেন বোম্বাই।

১৯৩৫ সালে ইস্টার্ন আর্টসের ব্যানারে এবং তার সংগীত পরিচালনায় মুক্তি পায় প্রথম ছবি ‘ধরম কি দেবি’। এর পর জাগিরদার, গ্রামোফোন সিঙ্গার ও মহাগীতের মতো হিট ছবিতে সংগীত পরিচালনা করেন তিনি। অনিলই প্রথম ভারতীয় সংগীত পরিচালক, যিনি টুয়েলভ পিস অর্কেস্ট্রা ব্যবহার করেন। তার সংগীত পরিচালনায় আরাম, আরজু, অঙ্গুলিমাল, আনোখা পেয়ার, কিসমত, পহেলি নজর, তারানা, পরদেশি, ওয়ারিশ, হামদর্দ প্রভৃতি ছবির গান আজও সমান জনপ্রিয়। এই ছবিগুলোতে তিনি সুরারোপ করেছিলেন ভারতীয় রাগের ভিত্তিতে।

২০০৩ সালে মৃত্যুর কিছুকাল আগেও বরিশালে ছেলেবেলায় শোনা কিছু গান রেকর্ড করতে চেয়েছিলেন তিনি। গায়িকা মীনা কাপুর তার সহধর্মিণী।

advertisement