advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কুশল মেন্ডিস জামিনে মুক্ত

ক্রীড়া ডেস্ক
৮ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৮ জুলাই ২০২০ ০২:৪৭
advertisement

বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে ৬৪ বছর বয়সী এক সাইকেল আরোহী বৃদ্ধকে চাপা দিয়ে মেরে ফেলেন শ্রীলংকার উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান কুশল মেন্ডিস। এর জন্য দেশটির পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারও করে। তবে গ্রেপ্তারের এক দিন পরই আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেলেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার ভোরে, দক্ষিণ কলম্বোর পানাদুরায়। এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটানোর জন্য ২৫ বছর বয়সী লংকান ব্যাটসম্যানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ আদালতে ওঠায়। তবে ২০ লাখ শ্রীলংকান রুপিতে জামিন দেওয়া হয় তাকে; কিন্তু আগামী ৯ সেপ্টেম্বর আবার আদালতে হাজিরা দিতে হবে।

পানাদুরার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট ১০ লাখ শ্রীলংকান রুপির (বাংলাদেশি মুদ্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকার বেশি) বিনিময়ে জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন। এর বাইরে নিহত পথচারীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণস্বরূপ আরও ১০ লাখ শ্রীলংকান রুপি দিতে বলা হয়েছে।

ঘটনার দিন রাতে শ্রীলংকান ক্রিকেট বোর্ডের এক স্টাফের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন মেন্ডিস, যা শেষ করে ফিরতে হয়ে যায় ভোর। সতীর্থ খেলোয়াড় আভিশকা ফার্নান্দোকে সঙ্গে নিয়েই ফিরছিলেন তিনি। তবে গাড়ি চালাচ্ছিলেন মেন্ডিসই। তখনই রাস্তায় সাইকেলে থাকা ৬৪ বছর বয়সী এক বৃদ্ধকে চাপা দিয়ে বসেন মেন্ডিস।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, হঠাৎ করেই দিক পরিবর্তন করে বসে মেন্ডিসের গাড়ি, যা গিয়ে আঘাত হানে একটি বাগানের দেয়ালে। এরই মাঝে সেই বৃদ্ধকেও ধাক্কা দেয় মেন্ডিসের গাড়ি। গুরুতর আহত হন সেই বৃদ্ধ। পানাদুরা হাসপাতালে নেওয়া হলেও ভর্তির প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

পুলিশের প্রাথমিক সন্দেহ ছিল, হয়তো মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন মেন্ডিস। সে অনুযায়ী তদন্ত করে দেখা গেছে মেন্ডিস তখন মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন না। তাই প্রাথমিক তদন্ত শেষে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে তার ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং জামিনের পর দেওয়া হয়েছে গাড়ি চালানোর অনুমতিও।

শ্রীলংকান ক্রিকেট দলের বর্তমান প্রজন্মের অন্যতম সেরা প্রতিভা ধরা হয় কুশল মেন্ডিসকে, যার প্রমাণ তিনি দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও। লংকানদের হয়ে খেলেছেন ৪৪ টেস্ট, ৭৬ ওয়ানডে ও ২৬ টি-টোয়েন্টি; অর্জন করেছেন ৯ সেঞ্চুরি ও ৩৩ ফিফটিতে সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি রান।

advertisement
Evaly
advertisement