advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এবার হংকংয়ে বন্ধ হচ্ছে টিকটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৮ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৮ জুলাই ২০২০ ০৩:০১
advertisement

হংকংয়ের ওপর বেইজিংয়ের চাপিয়ে দেওয়া নতুন নিরাপত্তা আইনের পর এবার সেখানে তথ্য বিস্তার সীমিত করার উদ্যোগ নিয়েছে চীন। এর অংশ হিসেবে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো বন্ধ হবে অথবা সরকার এতে হস্তক্ষেপ করবে। ইতোমধ্যে ফেসবুক ও টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এ ব্যাপারে তারা হংকং পুলিশের সঙ্গে ‘সহযোগিতা’ করবে। আর জনপ্রিয় অ্যাপস টিকটক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হংকংয়ে তারা এই সার্ভিস বন্ধ করে দেবে। খবর বিবিসি।

সম্প্রতি হংকংয়ে নতুন জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ করেছে চীন। এতে গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভকারীদের সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে দায়ীদের যাবজ্জীবন কারাদ-ের বিধান রাখা হয়েছে। এর পর হংকংয়ে অবাধ তথ্যের অধিকার খর্ব হচ্ছে। টিকটকের মুখপাত্র সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে জানিয়েছেন, সম্প্রতি আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে কয়েক দিনের মধ্যেই হংকংয়ে আমাদের কর্মকা- বন্ধ করব। এর আগে ফেসবুক ও টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, তারা গ্রহকের তথ্যের ব্যাপারে হংকং পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতা করবে। টিকটক হলো চীনের তৈরি সংক্ষিপ্ত ভিডিও অ্যাপস, যা ইতোমধ্যে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়তা পেয়েছে। টিকটক মূলত ডিজনি কোম্পানির সাবেক কর্মকর্তা ক্যালভিন মায়ার পরিচালনা করছেন। এর আগে তিনি বলেছিলেন, গ্রহকের তথ্য চীনে সংরক্ষিত হয় না এবং চীনা সরকারের কোনো অনুরোধে তথ্য সেন্সর করা হয় না।

উল্লেখ্য, চীনের নতুন আইন বেইজিংকে নতুন শক্তি দিয়েছে। এর পর থেকে হংকংয়ে একের পর এক সিদ্ধান্ত চাপিয়ে আসছে। ইতোমধ্যে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ইউরোপীয় দেশগুলো এর নিন্দা জানিয়েছে। তবে বেইজিং সোজা জানিয়েছে, হংকং নিয়ে কারও নাক না গলালেও চলবে।

advertisement