advertisement
advertisement

উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু আরও ১০ জনের

আমাদের সময় ডেস্ক
৮ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৮ জুলাই ২০২০ ০৩:২৩
advertisement

মহামারী করোনার উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কুমিল্লা ও বরিশালে তিনজন করে মারা যান। এ ছাড়া বগুড়ায় দুজন, মেহেরপুরের গাংনীতে একজন ও মৌলভীবাজারের জুড়িতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। সবার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

গাংনী (মেহেরপুর) : গাংনীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে জোবাইদা খাতুন নামের এক বৃদ্ধা গতকাল সকাল ১০টায় নিজ বাড়িতে মারা যান। তিনি গাংনী পশু হাসপাতালপাড়ার মৃত আবদুল গনীর স্ত্রী।

বগুড়া : শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল

কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের কোভিড ইউনিটে করোনোর উপসর্গ নিয়ে এক নারীসহ দুজন মারা গেছেন। গতকাল ভোর ৫টার দিকে মারা যান দেলোয়ার হোসেন নামে এক বৃদ্ধ। তার বাড়ি গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায়। তিনি পেশায় ইটভাটার মালিক। এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় একই ইউনিটে মারা যান এক নারী। তিনি শাজাহানপুর উপজেলার বাসিন্দা।

বরিশাল : জেলায় করোনার উপসর্গ নিয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে দুজন বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ও একজন নিজ বাড়িতে মারা যান। সোমবার রাত ১টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ১০টার মধ্যে এই তিনজনের মৃত্যু হয়। শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. বাকীর হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার চরফাকাকাটা এলাকার ওয়াহউল্লাহ খান শেবাচিমে চিকিৎসাধীন মারা যান। সোমবার রাত ১টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার চরদিরাস এলাকার আলতাফ হোসেন। এ ছাড়া গৌরনদী উপজেলার বেজহার গ্রামের আইয়ুব আলী সরদার নিজ বাড়িতেই মারা যান।

জুড়ি (মৌলভীবাজার) : জুড়িতে করোনা উপসর্গে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তিনি মারা যান। গত রবিবার উপজেলার ছোট ধামাই গ্রামে ৮৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ হার্টঅ্যাটাক করে মারা যান। স্বজনরা প্রথমে তাকে জুড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখান থেকে তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে তার মৃত্যু হয়।

কুমিল্লা : কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র জমিরউদ্দিন খান জম্পির ভাই মনিরউদ্দিনসহ আরও পাঁচজন মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন তারা মারা যান। তাদের মধ্যে মনিরউদ্দিন ও ৩৬ বছরের এক নারী করোনা আক্রান্ত ছিলেন। করোনায় মৃতরা হলেনÑ কুমিল্লা নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকার জমিরউদ্দিন খানের ভাই মনিরউদ্দিন খান ও সদর দক্ষিণ উপজেলার উনাইশহর এলাকার কাজী শহিদের মেয়ে সালমা। করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃতরা হলেনÑ কুমিল্লা নগরীর জাকুনীপাড়া এলাকার কানু লাল, নগরীর পূর্ব বাগিচাগাঁও এলাকার স্বপন ও কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার নোয়াপাড়া এলাকার হাসিনা।

advertisement
Evaly
advertisement