advertisement
advertisement

ছেলের খেলায় বাবা ফকির

আমাদের সময় ডেস্ক
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৯ জুলাই ২০২০ ২২:৪৩
advertisement

ছেলে পাবজি খেলে। ভার্চুয়াল যুদ্ধের সময় তার প্রয়োজন যুদ্ধ সরঞ্জাম। ভার্চুয়াল গোলাবারুদ কিনে বাবার অ্যাকাউন্ট ফাঁকা করে ফেলেছে ১৭ বছরের ওই কিশোর। টাকার পরিমাণ শুনে আঁতকে উঠবেন সবাইÑ ১৬ লাখ টাকা। এই টাকা চিকিৎসা ও ছেলের উচ্চশিক্ষার জন্য সঞ্চয় করা হয়েছিল। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পাঞ্জাব

প্রদেশে।

ছেলের এই কা- সম্পর্কে বাবা-মা কিছুই জানতেন না। লকডাউনের সময় তাদের ছেলে অনলাইনে পড়াশোনার জন্য স্মার্টফোনটি ব্যবহার করছিল। কাজেই অনলাইনে লেনদেন করা ছেলের পক্ষে সহজ হয়ে ওঠে। স্মার্টফোনে ছিল তার বাবার ব্যাংকের বিবরণ এবং কার্ডের বিশদ তথ্য। বাবা-মায়ের অগোচরে টানা এক মাস ধরে চলছিল এই গোলাবারুদ ও বন্দুকের কেনাকাটা। টাকা কাটার পর ফোনে আসা মেসেজ মুছে ফেলত গুণধর ছেলে। কাজেই বাবা জানতে পারতেন না। পাবজি খেলায় মশগুল ছেলে মায়ের প্রভিডেন্ট ফান্ডও খালি করে দিয়েছে। ব্যাংক স্টেটমেন্ট হাতে পেয়েই গোটা বিষয় সম্পর্কে জানতে পারেন বাবা-মা।

ছেলেটির বাবা সরকারি চাকুরে, কর্মসূত্রে পরিবারের কাছে থাকেন না। তিনি জানিয়েছেন, ওই টাকা তিনি বাঁচিয়েছিলেন ছেলের উচ্চশিক্ষার জন্য এবং ভবিষ্যতে চিকিৎসার খরচের কথা ভেবে। রক্ত পানি করে জমানো টাকা ছেলে এইভাবে উড়িয়ে দেওয়ায় রেগে আগুন বাবা তাকে একটি স্কুটার সারানোর দোকানে কাজে লাগিয়ে দিয়েছেন।

advertisement