advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ইউনিটের সদস্য করোনা পজিটিভ
কোয়ারেন্টিনে অপূর্ব-মেহজাবিন

বিনোদন সময় প্রতিবেদক
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৯ জুলাই ২০২০ ২৩:৩২
advertisement

শুটিং চলাকালীন দ্বিতীয়বারের মতো করোনা পরীক্ষা করা হলো। এতে ফল পজিটিভ আসে ইউনিটের দুই সদস্যের। তাই শুটিং বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এর পর নাটকটির পরিচালক মিজানুর রহমান আরিয়ানসহ মূল অভিনয়শিল্পী অপূর্ব-মেহজাবীন কোয়ারেন্টিনে চলে গেছেন। পাশাপাশি নাটকটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে বাসায় নিজ নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকার অনুরোধ করেছেন এর প্রযোজক।

৮ জুলাই উত্তরার একটি হাউসে ‘প্রাণ প্রিয়’ নামে একটি নাটকের শুটিং সেটে এই ঘটনা ঘটেছে। অপূর্ব-মেহজাবিনরা আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন, প্রথম কাজে পুরো টিম করোনা পরীক্ষা করেই নামবে। যে কথা, সেই কাজ। ৭ জুলাই করোনা নেগেটিভ নিয়ে ২২ জনের দল শুটিংয়ে নামে। জানা যায়, প্রথম দিন সন্ধ্যায় নাটকের শুটিংয়ে দুজন সদস্য সামান্য অসুস্থবোধ করেন। ওই সময়ে ইউনিটের দায়িত্বে তাদের দ্বিতীয়বারের মতো করোনা পরীক্ষা করানো হয়। নাটকটির আর মাত্র দুটি দৃশ্য শুটিং বাকি ছিল। এমন সময় শুটিংয়ের শেষ দিন অর্থাৎ ৮ জুলাই সন্ধ্যায় দুজনের ফল পজিটিভ আসে। তাই দৃশ্য দুটি বাদ রেখেই শুটিং বন্ধ ঘোষণা করেন নাটকটির প্রযোজক ও পরিচালক। ইউনিটের দায়িত্বে আক্রান্ত দুজনকে বাসায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তবে ইউনিটের কেউই ওই দুজনের নাম প্রকাশ করতে চাননি।

বাসায় ফিরে পরিবারের সবার থেকে আলাদা থাকা শুরু করেছেন নাটকটির নায়ক-নায়িকা অপূর্ব ও মেহজাবিন। মুঠোফোনে অপূর্ব বলেন, ‘নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই শুটিংয়ে নেমেছিলাম। লোকেশনেও নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি ছিল না। দ্বিতীয় দিন সারা দিন শুটিং করলাম। দুজনেই একদম ভালো ছিল। কোনো লক্ষণ বোঝা যায়নি। যাই হোক, এখন তো কিছু করার নেই। কোয়ারেন্টিনে আছি। দু-একদিনের মধ্যে আমি ও মেহজাবিন আবার পরীক্ষা করব। ফল নেগেটিভ এলে আরও কিছুদিন পর আরেকবার পরীক্ষা করব। কোনো সমস্যা না থাকলে তারপর শুটিংয়ে নামব।’

advertisement