advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বানিয়াচংয়ে স্থায়ীভাবে সাপ্তাহিক গরুর হাট স্থাপন

বানিয়াচং প্রতিনিধি
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০২০ ০০:০৪
advertisement

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় প্রথমবারের মতো গরুর স্থায়ী হাট স্থাপন করা হয়েছে। বিগত বছরগুলোয় বানিয়াচংয়ে ঈদ উপলক্ষে কোরবানির গরুর জন্য অস্থায়ীভাবে গরুর হাট বসলেও স্থায়ী কোনো গরুর হাট ছিল না। সাপ্তাহিক গরু ক্রয় বিক্রয়ের জন্য বানিয়াচংয়ের মানুষজন পার্শ^বর্তী আজমিরীগঞ্জ, নবীগঞ্জ অথবা হবিগঞ্জের গরুর হাটে যেতেন।

সরকারিভাবে মৌসুমি গরুর হাটের জন্য নির্ধারিত ৫/৬ নম্বর গরুর বাজারটি নিচু স্থানে হওয়ার কারণে বর্ষাকালে ডুবে যেত। তাই রাস্তার ওপর বসতো হাট। এ সমস্যা থেকে ক্রেতা-বিক্রেতাকে পরিত্রাণ দিতে বানিয়াচং উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাসেম চৌধুরী উদ্যোগ নেন।

উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে গরুর বাজারের নিচু মাঠ চলতি বছর ভরাট করা হয়েছে।

মাটি ভরাট করতে স্থানীয়ভাবে কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি বাধা প্রদান করলেও শেষ পর্যন্ত সম্পন্ন হয়েছে মাটি ভরাটের কাজ। গত ২৭ জুন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল মজিদ খান গরুর বাজারের মাটি ভরাট কাজের উদ্বোধন করেছেন।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং গরুর পাইকার সমিতির কোষাধ্যক্ষ আল আমিন জানান, আমরা আশা করছি খুব শীঘ্রই স্থায়ীভাবে সাপ্তাহিক গরুর হাট বসবে। এ প্রসঙ্গে বানিয়াচং প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা ও খামার মালিক মোশারফ হোসেন জানান, আমাদের বানিয়াচংয়ে সাপ্তাহিক স্থায়ী গরুর হাট থাকা খুবই প্রয়োজন। অথচ বিভিন্ন সমস্যার কারণে সাপ্তাহিক স্থায়ী হাট বসানো যাচ্ছিল না। এখন আর কোনো সমস্যা নেই আশা করছি সবাই মিলে গরুর হাট জমজমাট করতে পারব।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাসেম চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে বানিয়াচংয়ের প্রত্যাশিত সাপ্তাহিক স্থায়ী হাট বসানোর দাবি ছিল। কিন্তু বিভিন্ন সমস্যার কারণে বসানো যাচ্ছিল না সাপ্তাহিক স্থায়ী হাট। আমি একান্তভাবে চেষ্টা করে কাজটি সফলভাবে করেছি। আশা করি বানিয়াচংবাসীর আর সমস্যা থাকবে না।

advertisement