advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘বন্দুকযুদ্ধ’
উখিয়ায় তিন রোহিঙ্গা মাদককারবারি নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার ও উখিয়া প্রতিনিধি
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০২০ ০০:০৪
advertisement

উখিয়া সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে তিন রোহিঙ্গা মাদককারবারি নিহত এবং বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট, অস্ত্র ও গুলি। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের তুলাতলী জলিলের গোদা ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন বিজিবির কক্সবাজার-৩৪ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ।

নিহতরা হলো বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তমব্রু কোনারপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নুর আলম, উখিয়ার বালুখালী ১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি-২৯ ব্লকের মোহাম্মদ হামিদ ও কুতুপালং ২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৪ ব্লকের নাজির হোসেন। বিজিবির দাবি, নিহতরা মাদকপাচারকারী।

লে. কর্নেল আলী হায়দার দাবি করেন, ভোরে মিয়ানমার থেকে ইয়াবা ট্যাবলেটের বড় একটি চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারেÑ এমন খবরের ভিত্তিতে বিজিবির ১০ সদস্যের একটি দল তুলাতলী জলিলের গোদা ব্রিজ এলাকায় অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে মিয়ানমারের দিক থেকে অন্তত ১০ জনের একদল লোক পাহাড়ি এলাকা দিয়ে আসতে দেখে বিজিবির সদস্যরা তাদের থামার নির্দেশ দেন। কিন্তু তারা বিজিবি সদস্যদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে। বিজিবির সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে ইয়াবা ট্যাবলেট পাচারকারীরা পাহাড়ি এলাকা দিয়ে পালিয়ে গেলে গোলাগুলি থামে। পরে ঘটনাস্থলে তিনজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। এ ঘটনায় বিজিবির দুই সদস্য আহত হন। ঘটনাস্থলের আশপাশে তল্লাশি চালিয়ে পাওয়া যায় ৩ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ২টি দেশীয় লম্বা বন্দুক ও ৫টি গুলি।

বিজিবির অধিনায়ক বলেন, আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়।

কর্তব্যরত চিকিৎসক গুলিবিদ্ধ তিনজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আনার পথে জিজ্ঞাসাবাদে ওই তিনজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়।

advertisement