advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পৈতৃক ভিটা সরকারকে দিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী

বিন্দু তালুকদার সুনামগঞ্জ
১০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০২০ ০০:০৪
advertisement

সুনামগঞ্জ-৩ (দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও জগন্নাথপুর) আসনের সংসদ সদস্য পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান নিজের পৈতৃক ভিটার কয়েক কোটি টাকা মূল্যের ৪১ শতক জমি সরকারের অনুকূলে দান করেছেন। নারীদের কল্যাণে, বিশেষ করে গ্রামীণ নারীদের কল্যাণে এখানে স্থাপন করা হবে পরিকল্পনামন্ত্রীর মায়ের নামে ‘আজিজুননেসা টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট’। গতকাল বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদের কাছে এই দলিল হস্তান্তর করা হয়। বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিবের নামে সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা সদরের পার্শ্ববর্তী ডুংরিয়া গ্রামের পৈতৃক বসতবাড়ির এই জমি রেজিস্ট্রি করে দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি। মন্ত্রীর দান করা বসতবাড়িতে বেশ কয়েকটি একতলা টিনশেড ভবন রয়েছে। আজিজুননেসা টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউটের প্রশাসনিক কাজ আপাতত এখানেই করা যাবে।

মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেন, আমার আবেগ-অনুভূতির স্মৃতি এটি। আমার পৈতৃক ভিটা বলতে এটিই। ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়েছি। মা এই বাড়িতে থেকেই অনেক কষ্টে আমাকে লালন করেছেন। পড়াশোনা করিয়েছেন। আমার মায়ের স্মৃতি ধরে রাখার জন্যই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ‘আজিজুননেসা টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট’ নামে প্রতিষ্ঠানটির নামকরণ করেছেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, অসহায়, দুস্থ, বিধবা, দরিদ্র নারীদের কল্যাণে এটি ব্যবহার হবে। গ্রামের অসহায় নারীরা প্রশিক্ষণকেন্দ্রে যাতে থাকতে পারেন এবং সেখানে ক¤িপউটার, বুটিক, সেলাইসহ বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ নিতে পারেন সেই চিন্তা থেকে আমি জমিটি দান করেছি।

দলিল হস্তান্তরের সময় সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি পংকজ কান্তি দে, পরিকল্পনামন্ত্রীর রাজনৈতিক সহকারী হাসনাত হোসাইন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুজন, শফিক মোহাম্মদ জাভেদ, কামরুল ইসলাম শিপন, মঈনুল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

advertisement