advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

৭২ শতাংশ পার্টিক্যাল ফিল্টার সক্ষম ফেস মাস্ক আনলো ‘সারা’

নিজস্ব প্রতিবেদক
১১ জুলাই ২০২০ ১৯:২০ | আপডেট: ১১ জুলাই ২০২০ ১৯:২৪
advertisement

‘সারা’ লাইফস্টাইল এবার ৭২ শতাংশ পার্টিক্যাল ফিল্টার সক্ষমসহ লেভেল ২ ব্রেদিবিলিটির ৩ লেয়ারের প্রটেকটিভ কাপড়ের ফেস মাস্ক (নন মেডিক্যাল) নিয়ে এসেছে। করোনা মহামারিতে মানুষের প্রাত্যাহিক চলাচলের ক্ষেত্রে এখন ফেস মাস্কের ব্যবহার অপরিহার্য। সেক্ষেত্রে আরামদায়ক এবং কার্যকরী এই ফেস মাস্কটি সংকট নিরাময়ে হতে পারে প্রতিদিনের ব্যবহার্য অংশ।  

কাপড়ের তৈরি এই ফেস মাস্কটি ০.৩ মাইক্রনের পার্টিক্যাল ৭২ শতাংশ পর্যন্ত রোধ করতে পারে যেখানে সার্জিক্যাল ফেস মাস্কও ৭০-৯৫ শতাংশ পার্টিক্যাল রোধ করে। এ ছাড়াও মাস্কটি ব্রেদিবিলিটি অর্থাৎ শ্বাস-প্রশ্বাস এর ক্ষেত্রে ‘লেভেল-২’ এর মান পূরণ করে যা কেএন- ৯৫ ফেস মাস্ক এর সমতুল্য। পাশাপাশি ফেস মাস্কটিতে ব্যবহার করা হয়েছে এন্টিমাইক্রোবিয়াল ফিনিশ।

মাস্কটিতে আরও রয়েছে এডজাস্টেবল নোজ পিন এবং আরামদায়ক ইয়ার লুপ। সাধারণ দূষণ, ধুলাবালি প্রতিরোধেও ফেস মাস্কটি সম্পূর্ণরূপে সক্ষম, যা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকিও অনেকাংশে কমাতে সাহায্য করবে।

‘সারা’ লাইফস্টাইলের এই ফেস মাস্কটির অন্যতম বিশেষত্ব হলো, এটি ওয়াশেবল এবং পুনর্ব্যবহারযোগ্য। অর্থাৎ, বারবার ধুয়ে ব্যবহার করা যাবে। তবে, এন্টিমাইক্রোবিয়াল ফিনিশের কার্যকারিতা সাধারণ ডিটার্জেন্ট এ ২০ বার ওয়াশ করা পর্যন্ত থাকবে।

প্রস্তুতকালীন সময় থেকে সরবরাহকালীন সময় পর্যন্ত সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনেই ফেস মাস্কটি গ্রাহকের কাছে পৌছে দিচ্ছে ‘সারা’। এ ছাড়াও বাংলাদেশ সরকারের ডিজিডিএ’র নির্ধারিত ল্যাব থেকে ফেস মাস্কটির নিরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। বরাবরের মতোই ‘সারা’র ক্রেতাদের ক্রয়সীমার মধ্যেই মাস্কটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র পঞ্চাশ টাকা।

আকর্ষনীয়, উপযোগী এবং আরামদায়ক এই ফেস মাস্কটি মিরপুর, বসুন্ধরা সিটি, মোহাম্মাদপুর, উত্তরা এবং বারিধারায় ‘সারা’র আউটলেট ছাড়াও অনলাইনে অর্ডার করে বিনামূল্যে ঢাকার ভেতরে হোম ডেলিভারি পাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে, ‘সারা’ এর ওয়েবসাইট (www.saralifestyle.com.bd), ফেসবুক পেজ (www.facebook.com/saralifestyle.bd) এবং ইন্সটাগ্রাম (saralifestyle.bd) থেকে ক্রেতারা অর্ডার করতে পারবেন। এছাড়াও অনলাইনে অর্ডারের মাধ্যমে সমগ্র বাংলাদেশে কুরিয়ারের মাধ্যমে প্রোডাক্ট ডেলিভারি পাওয়া যাবে। 

advertisement