advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দেশেই করোনা চিকিৎসায় ‘নেগেটিভ প্রেশার আইসোলেশন’ ক্যানোপি উদ্ভাবন

নিজস্ব প্রতিবেদক
১১ জুলাই ২০২০ ২০:৫৬ | আপডেট: ১২ জুলাই ২০২০ ০১:১০
নেগেটিভ প্রেশার আইসোলেশন ক্যানোপি। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

করোনাভাইরাসে রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদান ও তাদের চিকিৎসায় দায়িত্বরত চিকিৎসক ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ‘নেগেটিভ প্রেশার আইসোলেশন ক্যানোপি’ উদ্ভাবন করা হয়েছে। আজ শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ডা. মিল্টন হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণা দল সম্পূর্ণ নিজস্ব ডিজাইনে এই ক্যানোপি তৈরি করেছে, যা মাত্র একটি বিছানার ওপরে একজন রোগীকে আলাদা করে রাখবে। এর চারদিকের পর্দা স্বচ্ছ ও উঁচু হওয়ায় রোগী অস্বস্তিবোধ করবেন না।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়, গবেষক দলের ডিজাইনে হেপা ফিল্টারের সঙ্গে বাড়তি আছে আল্ট্রাভায়োলেট আলোর প্রযুক্তি, যার মাধ্যমে প্রথমেই সব জীবাণু ও ভাইরাস ধ্বংস করে ফেলা হয়। এই ক্যানোপি কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদানকারী সম্মুখযোদ্ধা কর্তব্যরত চিকিৎসক ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা বিধানে সহায়ক হবে।

নেগেটিভ প্রেশার আইসোলেশন ক্যানোপি উদ্ভাবন, উন্নয়ন ও আইসিইউতে ব্যবহার বিষয়ে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন। বিএসএমএমইউয়ের এ্যানেসথেশিয়া, এ্যানালজেশিয়া অ্যান্ড ইনটেনসিভ কেয়ার মেডিসিন বিভাগ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেডিকেল ফিজিক্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের যৌথ উদ্যোগে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান অনলাইনে এ সংবাদ সম্মেলনে যোগ দেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন-বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ রফিকুল আলম, উপউপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক মো. জাহিদ হোসেন, এ্যানেসথেশিয়া, এ্যানালজেশিয়া অ্যান্ড ইনটেনসিভ কেয়ার মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক একেএম আখতারুজ্জামান প্রমুখ।

advertisement
Evaly
advertisement