advertisement
advertisement

নতুন শনাক্ত ২৬৮৬, মৃত্যু ৩০ : দেশে কমছে মৃত্যু ও আক্রান্তের হার

নিজস্ব প্রতিবেদক
১২ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১২ জুলাই ২০২০ ০০:১২
advertisement

মহামারী করোনা ভাইরাসে দেশে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। এক সপ্তাহ আগেও শনাক্তের সংখ্যা হাজার চারেকের কোটায় থাকলেও সেটি এখন নেমে এসেছে তিন হাজারের নিচে। ২৪ ঘণ্টায় সর্বশেষ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৬৮৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট সংখ্যাটা দাঁড়াল ১ লাখ ৮১ হাজার ১২৯ জনে। নতুন করে ৩০ জনসহ মোট মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৩০৫ রোগীর। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৬২৮ জন, মোট ৮৮ হাজার ৩৪ জন। নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে গতকাল শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য তুলে ধরেন।

ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১১ হাজার ৪৭৫টি এবং পরীক্ষা হয়েছে ১১ হাজার ১৯৩টির। এতে ২ হাজার ৬৮৬ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়, যেখানে রোগী শনাক্তের হার ২৪ শতাংশ। দেশে এখন পর্যন্ত ৯ লাখ ২৯ হাজার ৪৬৫টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এতে মোট রোগী শনাক্ত হয় ১ লাখ ৮১ হাজার ১২৯ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮ দশমিক ৬০ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৭ শতাংশ।

মৃত্যুর তথ্য তুলে ধরে ডা. নাসিমা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩০ জন। এর মধ্যে ২৫ পুরুষ এবং পাঁচজন নারী।

তাদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা গেছেÑ ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আটজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিনজন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন রয়েছেন। মৃতদের অঞ্চল বিশ্লেষণে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগে ১৩, চট্টগ্রামে ১০, রাজশাহীতে তিন, খুলনায় তিন এবং বরিশালে একজন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ১৮ জন, বাসায় ১১ জন এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হয় একজনকে। দেশে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হওয়া ২ হাজার ৩০৫ জনের মধ্যে পুরুষ ১ হাজার ৮২৪ এবং নারী ৪৮১ জন।

ডা. নাসিমা সুলতানা আরও জানান, নতুন করে ৮৫৩ জনসহ এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয় ৩৫ হাজার ৭৬৮ জনকে। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৫৫৪ জন, মোট ১৮ হাজার ২৭৭ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৭ হাজার ৪৯১ রোগী। আর ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ২ হাজার ১৪২ জনকে। এখন পর্যন্ত মোট কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয় ৩ লাখ ৯১ হাজার ৩২৩ সন্দেহভাজনকে। নতুন করে মুক্ত হয়েছেন ২ হাজার ২২৭ জন, মোট ৩ লাখ ২৭ হাজার ৮৭১ জন। বর্তমানে ৬৩ হাজার ৪৫২ জন কোয়ারেন্টিনে আছেন।

advertisement