advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নিয়ন্ত্রণে না এলে বিনিয়োগ আসবে না

আবু আলী
১২ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১২ জুলাই ২০২০ ০০:১২
advertisement

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত বিনিয়োগ পরিস্থিতির উন্নতি ঘটবে না। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত উদ্যোক্তারা নতুন করে বিনিয়োগ করবে না। বর্তমান পরিস্থিতিতে যতটুকু না করলেই নয় ততটুকুই বিনিয়োগ করছেন উদ্যোক্তারা। তারা মেশিনারিজ আমদানি করছেন না। নতুন করে ফ্যাক্টরি করতে জমি কিনছেন না।

বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক আহসান মনসুর আমাদের সময়ের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন।

আহসান মনসুর আরও বলেন, দেশে বিনিয়োগের বড় অংশই অভ্যন্তরীণ। ১ শতাংশেরও কম বিদেশি বিনিয়োগ হয়। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না এলে উদ্যোক্তা বিনিয়োগ করবেন না। ফলে এ বছরে বিনিয়োগের আশা করতে পারি না। তবে ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলে স্থবির হওয়া বিনিয়োগ আবার আসতে শুরু করবে। বিনিয়োগ না থাকায় কর্মসংস্থানের ওপর প্রভাব পড়েছে। তবে সরকার চেষ্টা করছে। আগে গার্মেন্টস খাতে বিদেশি বিনিয়োগে তেমন আগ্রহ ছিল না। এখন সেদিকেও নজর দেওয়া হয়েছে। অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোয় বিদেশিরা আসছে। তবে সেখানেও সময় লাগবে। তিনি বলেন, সরকারের হাতে থাকা অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোকে দ্রুত এগিয়ে নিতে হবে। মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের কাজ অনেক বাকি আছে। সেগুলো দ্রুত শেষ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, খাদ্যবহির্ভূত মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এতে সরকারের উচ্ছ্বসিত হলে চলবে না। সরকারকে চালের মজুদ করতে হবে। কোনোভাবেই যেন চালের সংকট না হয়। সে জন্য ১০-২০ লাখ টন চাল আমদানি করে রাখতে হবে। তিনি বলেন, সংকট আছে বলেই ধানের দাম ১১০০ টাকা মণ। এটি হাজার টাকার নিচে থাকার কথা। এ জন্য সরকারকে এ বিষয়ে সুনজর দিতে হবে। মানুষের হাতে কাজ নেই। তারা ভাত খেয়ে বেঁচে আছে। তাই সেখানে যেন সংকট তৈরি না হয় সে জন্য সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে। এখন বোরো ধান দিয়ে চলছে। বন্যা চলছে। এর পর আমন আসতে আসতে ডিসেম্বর লেগে যাবে। এ জন্য খাদ্যে যাতে কোনো সংকট তৈরি না হয় সেদিকে নজর দিতে হবে। অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর ওপর নির্ভর করবে কর্মসংস্থানের। এখন মানুষ চাল, ডাল, লবণ ছাড়া কেনাকাটা করছে না। ফলে রেস্টুরেন্ট, মার্কেট চলছে না। নতুন করে অবকাঠামো বা বাড়ি নির্মাণ হচ্ছে না। ফলে বড় ধরনের কর্মসংস্থানের সংকট তৈরি হয়েছে। এ জন্য সরকারকে দ্রুত করোনা নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিতে হবে।

advertisement
Evaly
advertisement