advertisement
advertisement

যেন মঙ্গলময় জুলাই

জাহাঙ্গীর সুর
১২ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১২ জুলাই ২০২০ ০০:১৪
advertisement

‘আশা’, ‘জিজ্ঞাসা’ আর ‘উদ্যম’ নিয়ে মঙ্গলগ্রহে পাড়ি জমাবে তিনটি নভোযান। এই মাসেই। সে কারণে জুলাই যেন মঙ্গলময় একটি মাস, বিশেষত জ্যোতির্বিজ্ঞানী ও মহাকাশপ্রেমীদের কাছে।

আমাদের সূর্যের সংসারে যে আটটি গ্রহ রয়েছে, এর মধ্যে দ্বিতীয় ছোট্ট গ্রহ মঙ্গল। কিন্তু পৃথিবীর জানালা থেকে তাকে লাল দেখায় বলেই কি না, গ্রহটিকে নিয়ে মানুষের কৌতূহলের ইতিহাস সভ্যতাপ্রাচীন।

সূর্য থেকে চতুর্থ, তবে পৃথিবীর পরই মঙ্গলের অবস্থান। যদিও গ্রহ দুটোর মধ্যে গড় দূরত্ব সাড়ে ২২ কোটি কিলোমিটার, মঙ্গলেই সবচেয়ে বেশি অভিযান চালিয়েছে পৃথিবী। তবে এখনো পর্যন্ত কোনো মানুষ ওই গ্রহের কক্ষপথে যেতে পারেনি, লালমাটিতে পা ফেলা তো এখনো কল্পনাবন্দি।

মঙ্গলে সবচেয়ে বেশি অভিযান চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত রাশিয়া। চীন ও ভারত এবং ইউরোপীয় জোট ওই গ্রহে অভিযান চালিয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রই কেবল মঙ্গলে কোনো নভোযান অবতরণ করাতে সমর্থ হয়েছে। তৃতীয় হওয়ার স্বপ্ন রয়েছে চীনের।

২০২১ সালে স্বাধীনতার পঞ্চাশ বর্ষ পূর্তিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথমবারের মতো মঙ্গলের কক্ষপথে পৌঁছে যেতে চায়। সে লক্ষ্যে ১৪ জুলাই তাদের মঙ্গলযান ‘হোপ মার্স মিশন’ অভিযান শুরু হওয়ার কথা। মঙ্গলের বায়ুম-ল, আবহওয়া ও জলবায়ু নিয়ে অনুসন্ধান করার জন্য গ্রহটির কক্ষপথে ঘুরবে তাদের হোপ (আশা) নামের অরবিটার। পরিকল্পনা অনুযায়ী যাত্রা শুরু করলে এবং কোনো দুর্ঘটনার শিকার না হলে একুশের মার্চে সেটি মঙ্গলে পৌঁছে যাওয়ার কথা।

এর পর ২৩ জুলাই মঙ্গলের উদ্দেশে একটি নভোযান উড়াবে চীন। এর নাম তিয়ানওয়েন-১। তিয়ানওয়েন মানে ‘স্বর্গীয় জিজ্ঞাসা’। এ অভিযানে মূল নভোযান মঙ্গলের কক্ষপথে ঘুরবে। একটি অবতরক যান মঙ্গলের মাটিতে নামবে। ওই অবতরক যানের মধ্যে থাকবে একটি রোভার, যা মঙ্গলের মাটিতে ঘুরে বেড়াবে। মঙ্গল নিয়ে বহুদিনের অমীমাংসিত সব জিজ্ঞাসনের জবাব খুঁজতে নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে আসতে চায় চীন।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা ৩০ জুলাই মঙ্গলের পানে ওড়াবে আরেকটি নভোযান। এ অভিযানের নাম মার্স ২০২০। এ অভিযানেও একটি অরবিটার, অবতরক যান ও রোভার থাকবে। রোভারটির নাম পারসেভারেন্স, যার অর্থ উদ্যম। কঠিন বাস্তবতায়ও এটি উত্তর অনুসন্ধান করবে, মঙ্গলের বুকে অতীতে কি কোনো জীবনের উদ্ভব ও বিকাশ ঘটেছিল কি না।

advertisement