advertisement
advertisement

করোনা প্রতিরোধ
তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় চীনের টিকা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৩ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুলাই ২০২০ ০০:৫৩
advertisement

তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় যাচ্ছে চীনা প্রতিষ্ঠান ক্যানসিনো বায়োলজিকসের করোনা ভাইরাসের টিকা। এ ব্যাপারে রাশিয়া, ব্রাজিল, চিলি ও সৌদি আরবের মতো দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করছে প্রতিষ্ঠানটি। এদিকে নভেম্বরে মানবদেহে করোনার সম্ভাব্য টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করার পরিকল্পনা করছে থাইল্যান্ড। খবর বিবিসি ও আলজাজিরার।

ক্যানসিনো বায়োলজিকসের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক কিউ দংজু বলেছেন, ‘আমরা তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার জন্য রাশিয়া, ব্রাজিল, চিলি ও সৌদি আরবের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। এটি এখনো আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে।’ শনিবার চীনের পূর্বাঞ্চলীয় জিয়াংসু প্রদেশে এন্টি ভাইরাল ড্রাগ ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক এক সম্মেলনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

যৌথভাবে এই টিকা উদ্ভাবন করেছে ক্যানসিনো বায়োলজিকস এবং অ্যাকাডেমি অব মিলিটারি মেডিক্যাল সায়েন্সের বেইজিং ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজি। টিকাটির নাম দেওয়া হয়েছে অ্যাড৫-এনকভ। এটি উদ্ভাবনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন অ্যাকাডেমি অব মিলিটারি মেডিক্যাল সায়েন্সেসের চেন ওয়েই। তার নেতৃত্বাধীন একটি দল এ নিয়ে কাজ করছে।

গত মার্চে চীনের এ ভ্যাকসিনটির প্রথম ধাপের ট্রায়াল সম্পন্ন হয়। ইতোমধ্যে ক্যানসিনোর এ টিকা সেনাসদস্যদের ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে চীনের সামরিক বাহিনী।

এদিকে আগামী বছরের মধ্যে ব্যবহারের জন্য টিকা প্রস্তুত করার লক্ষ্য থাই গবেষকদের। ১০ হাজার ডোজ বাজারে ছাড়ার প্রস্তুতি নিয়ে রাখছেন তারা। প্রাণীর ওপর পরীক্ষা চালিয়ে আশাব্যঞ্জক ফল পেয়েছেন গবেষকরা। এবার পরের ধাপে মানুষের ওপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হবে বলেছেন ব্যাংককের চুলালংকর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ্যাকসিন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের ডিরেক্টর কিয়াট রুক্সরুংথাম।

এক সংবাদ সম্মেলনে কিয়াট বলেছেন, ‘শুরুতে আমরা এই পরীক্ষা জুনে করতে চেয়েছিলাম, কিন্তু সব কিছু পরিকল্পনামতো করা সহজ ছিল না।’

advertisement