advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সাউদাম্পটনে ক্রিকেটের জয়

ক্রীড়া ডেস্ক
১৩ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুলাই ২০২০ ০১:৩৭
advertisement

করোনা ভাইরাস মার্চ থেকে বিবশ করে রেখেছিল পুরো বিশ্বকে। অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান হওয়ার পর ৮ জুলাই করোনা বিরতির পর প্রথম টেস্ট শুরু হয় যুক্তরাজ্যের সাউদাম্পটনে। রোজবোল স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ড লড়াই করেছে। করোনার পর ক্রিকেটে ফিরেছে সবাই তা মনেই হয়নি। আর টেস্ট ম্যাচের সব ছিল এই ম্যাচেÑ বৃষ্টির হানা, পেসারদের প্রতাপ ও ব্যাটসম্যানদের লড়াই। গতকাল প্রথম টেস্টের পঞ্চম দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জয়ের জন্য ২০০ রানের টার্গেট দেয় ইংল্যান্ড। ক্যারিবীয়রা জবাব দিতে নেমে সুবিধা করতে পারেনি। ইংলিশ পেসার জফরা আর্চার দারুণ বোলিং করেছেন। ৭ রানেই ২ উইকেট হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর এই ২ উইকেটই আর্চারের, যেটা লাঞ্চের আগে ২৭-৩ হয়ে গিয়েছিল স্কোর। তিন টেস্টের সিরিজ। যে দলই জিতে যাক, তার পরও ক্রিকেটের জয় হয়েছে বলতে হবে। মরণঘাতী ভাইরাসের প্রকোপ এখনো কমেনি। আর সেখানে শ্বাসরুদ্ধকর ৫টি দিন কোনো অঘটন ছাড়া কাটিয়ে দেওয়া ক্রিকেটের বিজয়। অনেকে তো আশঙ্কা করছিলেন, যদি খেলোয়াড়দের মধ্যে কেউ করোনা পজিটিভ হন! এমন কিছু ঘটেনি।

এই টেস্টে ইংল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। ইংল্যান্ড জেসন হোল্ডার (৬ উইকেট) ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের (৪ উইকেট) দারুণ বোলিংয়ে প্রথম ইনিংসে ২০৪ রানে অলআউট হয়। দলীয় সর্বোচ্চ ৪৩ রান প্রথমবারের মতো টেস্ট অধিনায়কত্ব করা বেন স্টোকসের। ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংসে ৩১৮ রান তুলে নেয়। ১১৪ রানের লিড পেয়ে যায় সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংল্যান্ড গতকাল পঞ্চম দিনে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩১৩ রানে অলআউট হয়। শিবলি ৫০, ক্রলি ৭৬, স্টোকস ৪৬ রান করেন। শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ৫ উইকেট নেন। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৯৬ রানে ৩ উইকেট হারিয়েছে। ১০৪ রান দূরে তারা। চেজ ৩৪ ও ৩৮ রানে খেলছিলেন ব্ল্যাকউড।

৩ টেস্ট সিরিজে যে দলই জিতুক ১-০তে এগিয়ে যাবে, যদি বৃষ্টি এসে হানা না দেয়। দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচটি রয়েছে ম্যানচেস্টারে। ১৬ জুলাই সে টেস্ট শুরু হবে। তৃতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচটিও ২৪ জুলাই রয়েছে একই ভেন্যুতে।

advertisement