advertisement
advertisement

ওদের দুর্নীতি সরকারই বের করেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৪ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুলাই ২০২০ ২৩:১০
advertisement

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনা শনাক্ত এবং চিকিৎসা বিষয়ে জেকেজি ও সাহেদের দুর্নীতি-প্রতারণা সরকারই উদ্ঘাটন করে ব্যবস্থা নিয়েছে। তিনি বলেন, কোনোটিই পত্রিকার রিপোর্ট বা অন্য কেউ অভিযোগের আঙুল তোলার পরে নয়। সরকার নিজেই এখানে অনিয়ম খতিয়ে দেখার

পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়গুলো উঠে এসেছে। মন্ত্রী গতকাল সোমবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। মন্ত্রী আরও বলেন, দুটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পর নানাজনে নানা বক্তব্য দিচ্ছেন, বিএনপিও মুখ খুলছে।

হাছান বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি এদেরকে সংশ্লিষ্ট করার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আরও সতর্ক হওয়ার অবশ্যই প্রয়োজনীয়তা ছিল। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব পৃথিবীতে দেখা দেওয়ার পর থেকেই সরকার দেশের মানুষকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য নানা পদক্ষেপ নিয়েছে- উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর পরই মুজিববর্ষের সব আনুষ্ঠানিকতা ও আমাদের মহান স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী দিবানিশি কাজ করে এই করোনা ভাইরাস মোকাবিলা করে দেশের অর্থনীতিকে বিপর্যয় থেকে রক্ষার চেষ্টা করছেন।

বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের পদক্ষেপ নিয়ে বিএনপির বিরূপ মন্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কখন যে বলে বসেন- সরকারের উদাসীনতার কারণে বানের পানি এসেছে, আমি সেই শঙ্কার মধ্যে আছি।

এসএসসি পাস সাহেদ কীভাবে পত্রিকার ডিক্লারেশন পেয়েছে- এ প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘পত্রিকার ডিক্লারেশন ডিসি অফিস থেকে নিতে হয় এবং ডিক্লারেশন পাওয়ার জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতার বাধ্যবাধকতা নেই। সাহেদ পত্রিকার ডিক্লারেশন নিলেও সেই পত্রিকা বের করেছেন কিনা, সেটি ডিএফপি (চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর) খতিয়ে দেখছে। একজন প্রতারকের হাতে পত্রিকার ডিক্লারেশন থাকবে কিনা, সেটি বিবেচনায় নেওয়া জরুরি।

অনলাইন সংবাদ পোর্টালের বিষয়ে ড. হাছান বলেন, অনলাইনগুলোর রেজিস্ট্রেশন দেওয়ার উদ্যোগ মার্চ মাসেই নেওয়া হয়েছিল। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ায় সেটি স্থগিত হয়। তবে সরকারের সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর প্রতিবেদনের ভিত্তিতে শিগগিরই রেজিস্ট্রেশন দেওয়া হবে।

advertisement