advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

লাজ ফার্মায় ৫০ লাখ টাকার মেয়াদোত্তীর্ণ-অনুমোদনহীন ওষুধ, জরিমানা ২৯ লাখ

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৩ জুলাই ২০২০ ২৩:২২ | আপডেট: ১৪ জুলাই ২০২০ ০২:১০
কাকরাইলে লাজ ফার্মায় র‌্যাবের অভিযান। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

রাজধানীর কাকরাইলে লাজ ফার্মায় মেয়াদোত্তীর্ণ, আমদানি নিষিদ্ধ ও অনুমোদনহীন ওষুধ রাখার অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটিকে ২৯ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় লাজফার্মা থেকে ৭৬ ধরনের প্রায় ৫০ লাখ টাকা মূল্যের ওষুধ জব্দ করা হয়েছে।

আজ সোমবার বিকেলে সাড়ে ৩টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ বসুর নেতৃত্বে র‌্যাব-৩ এর একটি দল লাজ ফার্মার কাকরাইল শাখায় অভিযান চালায়। অভিযানকালে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

র‌্যাবের মিডিয়া উইং জানায়, সম্প্রতি দুজন ভুক্তভোগী লাজ ফার্মা থেকে মেয়োদোত্তীর্ণ ও অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রির বিষয়ে অভিযোগ করেন। ওই অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ের পর সোমবার লাজ ফার্মার কাকরাইল শাখায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় লাজ ফার্মা থেকে ৫০ লাখ টাকা মূল্যমানের ৭৬ ধরনের ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। জব্দ করা ওষুধগুলোর মধ্যে কিছু মেয়াদোত্তীর্ণ এবং কিছু ওষুধ আমদানি নিষিদ্ধ এবং অনুমোদনহীন।

ভ্রাম্যমাণ আদলতের কাছে অপরাধ স্বীকার করায় লাজ ফার্মার কাকরাইল শাখার ম্যানেজার রতন সরকার, সহকারী ম্যানেজার আমিরুল ইসলাম, সিনিয়র সেলসম্যান আল মামুন, সুপারভাইজার মামুনুর রশিদ, জুনিয়র সুপারভাইজার হৃদয় সরকারকে পাঁচ লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং জুনিয়র সেলসম্যান রুবেল হোসেন ও মোস্তাকিন নাজিমকে দুই লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, লাজ ফার্মায় মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যে নকল সিল মারার প্রমাণ পাওয়া গেছে। দীর্ঘদিন ধরে তারা মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যে নকল সিল মেরে বিক্রি করে আসছিলেন।

advertisement
Evaly
advertisement