advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে নারীকে গণধর্ষণ গ্রেপ্তার ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক সাভার
১৪ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুলাই ২০২০ ২৩:২৭
advertisement

সাভারের আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে এক নারীকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগে সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার গভীর রাতে নবীনগর চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার পল্লী বিদ্যুৎ এলাকা থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুদীপ কুমার দাস জানান, এ ঘটনায় ওই নারী মামলা করেছেন। সোমবার দুপুরে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়। তাদের সবার বয়স ১৮ থেকে ২৯ বছর।

পুলিশ জানায়, রবিবার রাতে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকা থেকে আশুলিয়া ক্লাসিক পরিবহন নামের একটি বাসে পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় আসার জন্য এক নারী উঠেন। পরে বাসটির চালক গাড়িটি পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় না গিয়ে মহাসড়কের পাশে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে আরও দুই সহযোগীসহ তিনজন মিলে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। এ সময় ধর্ষণে আরও চার যুবক তাদের সহায়তা করে। পরে ওই নারী চলন্ত গাড়ি থেকে চিৎকার দিলে মহাসড়কে টহলরত আশুলিয়া থানার এসআই সুদীপ কুমার বিষয়টি জানতে পারেন। পরে পুলিশের ওই কর্মকর্তা গাড়িটিতে তল্লাশি চালিয়ে গাড়ির চালক আনিছসহ সাতজনকে আটক করে ও

নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান।

গণধর্ষণের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে সোমবার সকালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে পুলিশ। ওই নারী বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করে জীবিকা নির্বাহ করতেন বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী সাতজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে চলন্ত বাসে ফের নারী ধর্ষণের খবরে আশুলিয়ায় স্থানীয় নারীদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এর আগে সাভার ও ধামরাইয়ে বেশ কয়েকবার চলন্ত যাত্রীবাহী বাসে কয়েকজন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন।

advertisement