advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চবির ঝরনায় প্রাণ গেল বহিরাগত যুবকের

চবি প্রতিনিধি
১৪ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুলাই ২০২০ ২৩:২৭
advertisement

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ঝরনায় পা পিছলে পড়ে এক বহিরাগত যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম সাইফুল ইসলাম মুন্না। তার বাড়ি হাটহাজারীর ফতেপুর এলাকায়। তার বাবার নাম সিরাজুল হক। তিনি হাটহাজারী কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কলা অনুষদের পেছনে ঝর্ণার সঙ্গে লাগোয়া তাদের সবজি বাগান আছে। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে সেই সবজি বাগান পরিদর্শন করে ফেরার পথে ঝর্ণার খাদে পড়ে যান মুন্না। তিনি সাঁতরে কূলে উঠতে চাইলেও স্রোতের কারণে বারবার তলিয়ে যাচ্ছিলেন। একসময় আর পেরে না উঠে তলিয়ে যান গভীর খাদে। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এসে দুপুর ১টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

হাটহাজারী ফায়ার স্টেশনের সহকারী কর্মকর্তা মো. আবু জাফর বলেন, ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায়। পানির তীব্র স্রোতে যুবকটি খাদের অনেক গভীরে চলে গিয়েছিল। প্রায় দুই ঘণ্টা টানা অভিযানে

আমরা তার মরদেহ উদ্ধার করতে সমর্থ হই।

চবি প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, চট্টগ্রামে ভারী বর্ষণে পাহাড়ি ঢল সৃষ্টি হয়। ফলে ঝর্ণায় এই সময় তীব্র স্রোত থাকে। সম্ভবত যুবকটি স্রোতের কারণে সাঁতরে উঠতে পারেনি। আমরা খবর পেয়ে হাটহাজারী ফায়ার স্টেশনকে জানাই।

এর আগে ২০১৫ সালে চবির মানব সম্পদ বিভাগের প্রথম বর্ষের দুই শিক্ষার্থী একই ঝর্ণায় পড়ে মারা যান। এর পর থেকে সেই ঝর্ণায় চলাচল নিষিদ্ধ করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

advertisement