advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বগুড়া-যশোরে হেরে যাওয়া সবার জামানত বাজেয়াপ্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ জুলাই ২০২০ ২৩:৩২
advertisement

বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচনে বিজয়ী দুই প্রার্থী বাদে বাকি সব প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। গত ১৪ জুলাই অনুষ্ঠিত ভোটের ফল বিশ্লেষণে এ তথ্য পাওয়া গেছে। নির্বাচনী আইন অনুযায়ী, নির্বাচনে ভোটার প্রদত্ত মোট ভোটের আট ভাগের এক ভাগ না পাওয়া প্রার্থীদের জামানত স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাজেয়াপ্ত হয়ে যায়।

জানা গেছে, বগুড়া-১ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৩০ হাজার ৮১৪ জন। ভোটকেন্দ্র ১২৩টি। ভোটের ফলে দেখা গেছে, বৈধ ভোট পড়েছে ১ লাখ ৪৯ হাজার ৪৬৭টি। বাতিল হয়েছে ১৩১৫ ভোট। এমপি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ প্রার্থী। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাহাদারা মান্নান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন

১ লাখ ৪৫ হাজার ২৯৫ ভোট, জাতীয় পার্টির প্রার্থী অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম লাঙ্গল প্রতীকে পেয়েছেন ১২৫১ ভোট, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির মো. রনি বাঘ প্রতীকে পেয়েছেন ১৮৪ ভোট, খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী প্রভাষক নজরুল ইসলাম বটগাছ প্রতীকে পেয়েছেন ৪৭৪ ভোট ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ ট্রাক প্রতীকে পেয়েছেন ১৫৯৯ ভোট। এ ছাড়া বিএনপি প্রার্থী একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির (ধানের শীষ) নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেও ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৬৬৪ ভোট। ভোটের এই হিসাবে বিজয়ী সাহাদারা মান্নান বাদে সবার জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

অন্যদিকে যশোর-৬ আসনে ভোটার ২ লাখ ৩ হাজার ১৮ জন। এর মধ্যে বৈধ ভোট দিয়েছেন ১ লাখ ২৭ হাজার ৬৯৩ জন। বাতিল হয়েছে ১৩৭৪ ভোট। প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন তিনজন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহীন চাকলাদার নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১ লাখ ৪ হাজার ৩ ভোট, বর্জনের ঘোষণা দিলেও বিএনপির আবুল হোসেন আজাদ ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ১২ ভোট এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থী হাবিবুর রহমান লাঙ্গল প্রতীকে পেয়েছেন ১৬৬৮ ভোট। এ আসনেও বিজয়ী প্রার্থী বাদে বাকি দুজন জামানত হারিয়েছেন।

advertisement
Evaly
advertisement