advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

শিক্ষা উপমন্ত্রীর মানহানি
চট্টগ্রামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে যুবক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম ব্যুরো
১৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ জুলাই ২০২০ ২৩:৫৮
advertisement

চট্টগ্রামে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীকে আক্রমণ করে ফেসবুকে মানহানিকর স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা একটি মামলায় এনামুল হককে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মামলাটি দায়ের করেন বাকলিয়া ওয়ার্ড ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল উদ্দিন রুবেল। গত মঙ্গলবার রাতে নগরীর শাহ আমানত সেতু এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে বাকলিয়া থানাপুলিশ। জানা যায়, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে শিক্ষা উপমন্ত্রীর পরিদর্শনের জের ধরে হামলার ঘটনায় মন্ত্রীর প্রতিক্রিয়ার একটি সংবাদ নিজের ফেসবুকে শেয়ার করে উপমন্ত্রীকে ‘ভাইফুত’ সম্বোধন করে এনামুল। এ ছাড়া মন্ত্রীর সঙ্গে হাসপাতালে যাওয়া নেতাকর্মীদের ‘টোকাই’ হিসেবেও উল্লেখ করেন তিনি। একই পোস্টে মন্ত্রীকে ‘তুই’ সম্বোধন করে অশালীন শব্দও ব্যবহার করেন এনামুল। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এনামুল নিজে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করেছেন বলে জানান। এনামুল হক নগরীর বাকলিয়া থানা আওয়ামী লীগের সদস্য সোলাইমানের ছোট ভাই। স্থানীয় রাজনীতিতে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত সোলাইমান ও এনামুল হক। এ ছাড়া রাজনৈতিক গ্রুপিংয়ের সুবিধা কাজে লাগিয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনসহ বিভিন্ন রকমের অপরাধমূলক কর্মকা-ে জড়িত থাকার অভিযোগও রয়েছে এ দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে। বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেজাম উদ্দিন বলেন, শিক্ষা উপমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে মানহানিকর পোস্ট দেওয়ায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের হয়।

সে মামলার আসামি এনামুল হক। শাহ আমানত সেতু এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement