advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

জনগণের ঈদ উদযাপনকে নির্বিঘœ করুন : আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৬ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৬ জুলাই ২০২০ ১১:৫৫
advertisement

সবার ঈদকে নির্বিঘœ করতে পুলিশ কর্মকর্তাদের আহ্বান জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ। সেই সঙ্গে চলমান করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে ঈদ ঘিরে পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্রে সমাগম না করতে দেশবাসীর প্রতিও জানিয়েছেন অনুরোধ। গতকাল বুধবার বিকালে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স থেকে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে পুলিশের সব ইউনিটপ্রধানের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা ও নিরাপত্তাব্যবস্থা সংক্রান্ত ভার্চুয়াল বৈঠকে আইজিপি এ আহ্বান জানান।

আইজিপি বলেন, সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করে পশুর হাটে কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয় করতে হবে। সম্ভব হলে ইজারাদারদের সঙ্গে সমন্বয় করে পশুর হাটের প্রবেশপথে জীবাণুরোধী চেম্বার স্থাপন করা যায়। পশুর হাটে জালনোট বন্ধে পুলিশি তৎপরতা বাড়াতে হবে। ইজারাদাররা যাতে অতিরিক্ত হাসিল আদায় করতে না পারে, সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে হবে।

কোরবানির পশুর চামড়া ক্রয়-বিক্রয় কেন্দ্র করে কোনো ধরনের চাঁদাবাজি ও অরাজকতা বরদাশত করা হবে না বলে কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন আইজিপি। চামড়া পাচার রোধেও প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে বলেন তিনি। পুলিশপ্রধান বলেন, ঈদে ঘরমুখো মানুষের নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা নিতে হবে। কোনো পরিবহন অতিরিক্ত যাত্রী বহন করতে পারবে না। লঞ্চসহ সব ধরনের জলযান অতিরিক্ত যাত্রী নিতে পারবে না। সড়ক-মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করতে হবে।

গুরুত্বপূর্ণ মসজিদে ঈদের জামাতের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়ে আইজিপি বলেন, ঈদ কেন্দ্র করে যেন কোনো গোষ্ঠী বা মহল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কোনো ধরনের গুজব ছড়িয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে, সেজন্য গোয়েন্দা নজরদারি ও মনিটরিং বাড়াতে হবে। জঙ্গি ও সন্ত্রাসীগোষ্ঠীর অপতৎপরতা সম্পর্কে সদা সতর্ক ও তৎপর থাকতে হবে। নিয়মিত গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করতে হবে, নজরদারি বাড়াতে হবে। আইজিপি আগামী মাসে জাতীয় শোক দিবস, পবিত্র আশুরা এবং শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা নিশ্চিতেরও নির্দেশনা দেন বৈঠকে।

advertisement